• বৃহস্পতিবার   ২২ অক্টোবর ২০২০ ||

  • কার্তিক ৭ ১৪২৭

  • || ০৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

৬২

জমজমাট আইপিএলের পর্দা উঠছে আজ

দৈনিক বগুড়া

প্রকাশিত: ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০  

বিশ্বের কোটি ক্রিকেট ভক্ত প্রতিবছর বিশেষ আগ্রহ নিয়ে অপেক্ষায় থাকে এপ্রিল-মে মাসের। কেননা এ দুই মাসেই হয় ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটের সবচেয়ে জমজমাট ও জনপ্রিয় আসর ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) ক্রিকেট। টুর্নামেন্টটি ভারতের হলেও, মাঠের উত্তেজনাপূর্ণ খেলা এবং মাঠের বাইরের গ্ল্যামারের হাতছানিতে বিশ্ব ক্রিকেটে বড় জায়গা দখল করেছে আইপিএল।

এবার করোনাভাইরাসের কারণে এপ্রিল-মে মাসে আইপিএল আয়োজন সম্ভব হয়নি। সব স্বাভাবিক থাকলে যেই টুর্নামেন্ট শুরুর কথা ছিল ২৯ মার্চ, প্রায় ছয় মাস পিছিয়ে সেটি হচ্ছে ১৯ সেপ্টেম্বর। আজ (শনিবার) রাতে পর্দা উঠছে জমজমাট আইপিএলের। উদ্বোধনী ম্যাচে লড়বে গত আসরের দুই ফাইনালিস্ট মুম্বাই ইন্ডিয়ানস ও চেন্নাই সুপার কিংস।

অর্থাৎ যেখানে শেষ হয়েছিল দ্বাদশ আইপিএল, সেই ম্যাচ দিয়েই যেনো ২০২০ সালে শুরু হচ্ছে টুর্নামেন্টটির ত্রয়োদশ আসর। করোনা ঝুঁকি কমাতে এবার ভারতে হচ্ছে না আইপিএল। প্রাণঘাতী এ ভাইরাসের প্রকোপ তুলনামূলক কম থাকায় পুরো টুর্নামেন্ট নিয়ে যাওয়া হয়েছে আরব আমিরাতে।

যার ফলে ১৩ বছরের ইতিহাসে এবারই প্রথম ভারতের বাইরে হতে যাচ্ছে আইপিএলের পুরো আসর। এর আগে লোকসভা নির্বাচনের কারণে ২০০৯ সালে দক্ষিণ আফ্রিকা ও ২০১৪ সালে আমিরাতে নেয়া হয়েছিল আইপিএলের কিছু খেলা। কিন্তু এবার ভারতে এতগুলো দল ও খেলোয়াড়দের স্বাস্থ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করা সম্ভব নয় বিধায়, পুরো আসরই আয়োজিত হচ্ছে আরেক দেশে।

আবুধাবির শেখ আবু জায়েদ স্টেডিয়ামে হবে আইপিএলের এবারের আসরের উদ্বোধনী ম্যাচ। ঐতিহ্যগতভাবেই এই রান কম হয়ে থাকে এই ভেন্যুতে। তবে ২০১৪ সালের আইপিএলে সর্বোচ্চ ২০৬ রান করতে পেরেছিল কিংস এলেভেন পাঞ্জাব। দর্শকবিহীন মাঠে এবার তেমন কিছুর পুনরাবৃত্তির চেষ্টাই করবে মুম্বাই ও চেন্নাই।

উদ্বোধনী ম্যাচের আগে পরিসংখ্যানের পাতায় চোখ বুলালে একজন মুম্বাই সমর্থকের মিশ্র অনুভূতি হতে বাধ্য। কেননা ২০১২ সালের পর এখনও পর্যন্ত কোনো আসরের উদ্বোধনী ম্যাচ জেতেনি মুম্বাই। অন্যদিকে গত দুই আসরেই প্রথম ম্যাচ জেতার সুখস্মৃতি রয়েছে চেন্নাইয়ের।

এটুকুতেই তৃপ্তির ঢেঁকুর তোলার সুযোগ নেই চেন্নাই সমর্থকদের। কেননা ২০১৩ সালের পর থেকে শুধু মুম্বাই ইন্ডিয়ানসই চেন্নাইয়ে বিপক্ষে হারের চেয়ে বেশি ম্যাচ জিতেছে। সবশেষে ১০ ম্যাচে ৮ জয় ছাড়াও, গত ৭ বছরে চেন্নাইয়ের বিপক্ষে ১৬ ম্যাচে ১০টিতেই জিতেছে মুম্বাই। এর মধ্যে ছিল ২০১৩, ২০১৫ ও ২০১৯ সালের ফাইনাল ম্যাচটিও।

তবু অতীত সাফল্য কিংবা ব্যর্থতা নিয়ে ভাবার খুব একটা সুযোগ নেই ক্রিকেট মাঠে। নির্দিষ্ট দিনে যারা ভালো খেলবে, জয়ীর মালা পরবে তারাই। বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় মুখোমুখি হবে মুম্বাই ও চেন্নাই। সেখানেই জানা যাবে, কারা হবে উদ্বোধনী ম্যাচের বিজয়ী দল। বাংলাদেশ থেকে স্টার নেটওয়ার্কের পর্দায় সরাসরি দেখা যাবে আইপিএলের ম্যাচগুলো।

চেন্নাইয়ের সম্ভাব্য একাদশ: শেন ওয়াটসন, আম্বাতি রাইডু, ফাফ ডু প্লেসি, মহেন্দ্র সিং ধোনি (অধিনায়ক, উইকেটরক্ষক), কেদার যাদভ, ডোয়াইন ব্রাভো, রবীন্দ্র জাদেজা, পিয়ুশ চাওলা, দীপক চাহার, শার্দুল ঠাকুর এবং ইমরান তাহির।

মুম্বাইয়ের সম্ভাব্য একাদশ: রোহিত শর্মা (অধিনায়ক), কুইন্টন ডি কক (উইকেটরক্ষক), সূর্যকুমার যাদভ, ইশান কিশান, কাইরন পোলার্ড, হার্দিক পান্ডিয়া, ক্রুনাল পান্ডিয়া, নাথান কাউল্টান নিল, রাহুল চাহার, ট্রেন্ট বোল্ট এবং জাসপ্রিত বুমরাহ।

দৈনিক বগুড়া
দৈনিক বগুড়া
খেলা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর