• বৃহস্পতিবার   ১৩ আগস্ট ২০২০ ||

  • শ্রাবণ ২৯ ১৪২৭

  • || ২৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

১৬

ত্যাগের মহিমায় উজ্জীবিত হওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

দৈনিক বগুড়া

প্রকাশিত: ১ আগস্ট ২০২০  

কোরবানির মাহাত্ম্য ধরে রেখে ত্যাগের মহিমায় উজ্জীবিত হয়ে দেশ ও দেশের মানুষের কল্যাণে নিজেদের নিয়োজিত করার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। করোনাভাইরাস পরিস্থিতি বিবেচনায় স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করতেও সবার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

শুক্রবার (৩১ জুলাই) বাংলাদেশ টেলিভিশন ও একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলে প্রচারিত এক ভিডিও বার্তায় প্রধানমন্ত্রী সবাইকে ঈদুল আজহার শুভেচ্ছা জানিয়ে এ আহ্বান জানান। ঈদুল আজহা উপলক্ষে পৃথক এক বাণীতেও প্রধানমন্ত্রী কোরবানির মর্মবাণী অন্তরে ধারণ করে বৈষম্যহীন, সুখী, সমৃদ্ধ ও শান্তিপূর্ণ বাংলাদেশ গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়েছেন সবার প্রতি।

ভিডিও বার্তায় প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বছর ঘুরে আমাদের মাঝে আবার এসেছে পবিত্র ঈদুল আজহা। করোনা মহামারির এই দুঃসময়ে সকল আঁধার কাটিয়ে ঈদুল আজহা আমাদের জীবনে বয়ে আনুক অনাবিল আনন্দ। আসুন, কোরবানির ত্যাগের মহিমায় উজ্জীবিত হয়ে দেশ ও দেশের মানুষের কল্যাণে আত্মনিয়োগ করি।’

দেশ ও দেশের বাইরে অবস্থানরত সবাইকে ঈদের শুভেচ্ছা জানান প্রধানমন্ত্রী। করোনাভাইরাসের বিস্তার বোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বানও জানান তিনি। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘সুস্থ থাকুন, নিরাপদ থাকুন। ঈদ মোবারক।’

এদিকে, ঈদুল আজহা উপলক্ষে দেওয়া পৃথক এক বাণীতে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এবার আমরা এক সংকটময় সময়ে ঈদুল আজহা উদযাপন করছি। করোনাভাইরাস সমগ্র বিশ্বকে স্থবির করে দিয়েছে। আমাদের সরকার এ পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিচ্ছে। আমরা জনগণকে সকল সহযোগিতা অব্যাহত রেখেছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আল্লাহ বিপদে মানুষের ধৈর্য পরীক্ষা করেন। এসময় সবাইকে অসীম ধৈর্য নিয়ে সহনশীল ও সহানুভূতিশীল মনে একে অন্যকে সাহায্য করে যেতে হবে। এই বিপদের সময় আমাদের স্বাস্থ্যকর্মী, ডাক্তার, নার্স, পুলিশ, প্রশাসন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, সশস্ত্র বাহিনী, ব্যাংকার ও পরিচ্ছন্নতাকর্মীসহ যারা জীবন বাজি রেখে মানুষের সেবা করে যাচ্ছেন, তাদের আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

এই মহামারিতে সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে নির্ধারিত স্থানে পশু কোরবানি করতে অনুরোধ জানান প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, আমরা যেন ঘরে পরিবার-পরিজন নিয়ে ঈদের আনন্দ উপভোগ করি। আল্লাহ তায়ালার দরবারে বিশেষ দোয়া করি, যেন এই সংক্রমণ থেকে আমরা সবাই দ্রুত মুক্তি পাই।

কোরবানির শিক্ষা গ্রহণের আহ্বান জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, হযরত ইব্রাহীম (আ.) মহান আল্লাহর উদ্দেশে প্রিয়বস্তুকে উৎসর্গ করার মাধ্যমে তার সন্তুষ্টি লাভের লক্ষ্যে যে অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করে গেছেন, তা বিশ্ববাসীর কাছে চিরকাল অনুকরণীয় ও অনুসরণীয় হয়ে থাকবে। প্রতিবছর এ উৎসব পালনের মধ্য দিয়ে স্বচ্ছল মুসলমানরা কোরবানি করা পশুর গোস্ত আত্মীয়স্বজন ও গরীব-দুঃখীর মধ্যে বিলিয়ে দিয়ে মানুষ-মানুষে সহমর্মিতা ও সাম্যের বন্ধন প্রতিষ্ঠা করেন। ঈদুল আজহা শান্তি সহমর্মিতা, ত্যাগ ও ভ্রাতৃত্ববোধের শিক্ষা দেয়।

ঈদুল আজহার এই দিনে মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের কাছে প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশ ও মুসলিম উম্মাহর উত্তরোত্তর উন্নতি, সমৃদ্ধি ও অব্যাহত শান্তি কামনা করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী একটি অডিও বার্তায় দেশের জনগণের কাছে ঈদুল আজহার শুভেচ্ছা জানান। মোবাইল ফোন গ্রাহকদের কাছে এরই মধ্যে সেই বার্তা ভয়েস মেসেজ আকারে পৌঁছে গেছে।

দৈনিক বগুড়া
দৈনিক বগুড়া
জাতীয় বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর