• রোববার   ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||

  • আশ্বিন ৪ ১৪২৭

  • || ০২ সফর ১৪৪২

৬০

ধুনটে নদীতে গোসল দিতে গিয়ে স্কুল ছাত্রী নিখোঁজ

দৈনিক বগুড়া

প্রকাশিত: ৪ আগস্ট ২০২০  

বগুড়া ধুনটে ইছামতি নদীতে গোসল দিতে গিয়ে হালিমা খাতুন ( ১০) নামে এক স্কুল ছাত্রী নিখোঁজ হয়েছে। উপজেলার চিকাশী ইউনিয়নের বরিয়া পশ্চিম পাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে । নিখোঁজ ওই স্কুল ছাত্রী কালেরপাড়া ইউনিয়নের সরুগ্রামের আবদুল বারিকের মেয়ে ও শেরপুর গাড়িদহ ইবনে সিনা স্কুলের প্রথম শ্রেণীর ছাত্রী।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায় গত ০২ আগষ্ট ২০২০ ইং তারিখে সন্ধ্যায় শেরপুর গাড়িদহ থেকে ঈদ-উল-আজহা দাওয়াত খেতে বড়িয়া গ্রামে নানা ইলিয়াস প্রমানিকের বাড়ী আসে। সোমবার দুপুরে ওই শিক্ষার্থীর খালা বাড়ির পাশে ইসামতি নদীতে গোসল দিতে যায়। ওই ছাত্রী চুপিচুপি তার খালার পিছু পিছু আসে। তার খালা গোসল করার সময় নদীর তীরে নিখোঁজ হালিমা খাতুন কে দেখতে পায়। পরে তিনি গোসল শেষে পিছন দিকে ফিরে দেখেন তার ভাগ্নি হালিমা খাতুন নেই।

তিনি মনে করেন সে হয়তো বাড়িতে চলে গেছে। কিন্তু বাড়িতে গিয়ে তাকে দেখতে না পেয়ে সবাই খোঁজাখুঁজি করতে থাকে। ইছামতি নদীর পারে তার পায়ের জুতা দেখতে পেয়ে হালিমা নদীতে তলিয়ে গেছে বলে ধারনা করা হয়।

হালিমা সাঁতার জানেনা। খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে স্থানীরা ফায়ার সার্ভিস কর্মীদের সংবাদ দেন। সংবাদ পেয়ে ধুনট ফায়ার সার্ভিসের ইনচার্জ আতাউর রহমানের নেতৃত্বে নিখোঁজ স্কুলছাত্রীর উদ্ধারের কাজ শুরু করেন। এখন পর্যন্ত নিখোঁজ স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে বলে ফায়ার সার্ভিস খেকে জানানো হয়।

দৈনিক বগুড়া
দৈনিক বগুড়া
বগুড়া বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর