• মঙ্গলবার   ০৬ ডিসেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২২ ১৪২৯

  • || ১২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

মাশরুম চাষে জিনিয়ার মাসিক আয় ৩০ হাজার টাকা

দৈনিক বগুড়া

প্রকাশিত: ২৪ নভেম্বর ২০২২  

বরগুনা সদর ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ডের জিনিয়া আক্তারের নিজ বাড়িতে মাশরুম চাষ করে প্রতি মাসে আয় করছে ৩০ হাজার টাকা । তিনি মাশরুম চাষ করে অল্পদিনে এলাকায় সাড় ফেলেছেন। মাশরুম চাষি জিনিয়া আক্তার বলেন, করোনা কালীন সময়ে এসডিবি জুমে ১৪ দিন ট্রেনিং এর মাধ্যমে মাশরুম চাষ সম্পর্কে জানতে পারি।সাভারে মাশরুম ইনস্টিটিউট থেকে ট্রেনিং নিয়ে আমার মাশরুম চাষ শুরু । যুব উন্নয়ন থেকে আমি লোন নিয়ে মাশরুম চাষ শুরু করি।

জিনিয়া বলেন মাসরুম ৩০০ থেকে ৩৫০ টাকা দরে প্রতিদিন ৪ থেকে ৫ কেজি মাশরুম বিক্রি করি। এতে আমি প্রতি মাসে ৪০ থেকে ৪৫ হাজার টাকা মাশরুম বিক্রি করতে পারি। ৮০০ প্যাকেট মাশরুম থেকে সকল খরচ বাদ দিয়ে আমার প্রতি মাসে ৩০ হাজার টাকার অধিক লাভ হচ্ছে । তিনি বলেন আমি আগামী বছর ১ হাজার ৫০০ প্যাকেটে মাশরুম চাষ করবো। তখন আমার মাসে আয় হবে ৭০ থেকে ৮০ হাজার টাকা।

মাশরুম চাষ সম্পর্কে জানতে চাইলে জিনিয়া বলেন,কাঠের গুড়া, গমের ভুসি, ক্যালসিয়াম কার্বনেট ,চুন ও তুস মিশ্রণ করে একটি পলিব্যাগের ভিতর দিয়ে ১৬ ঘণ্টা ঠান্ডা করে বিজ দিলে ৩০ দিনের মধ্যে ফলন পাওয়া যায়। এক একটি মাসরুম প্যাকেট তৈরি করতে ২৫ থেকে ৩০ টাকা খরচ হয়। সকল খরচ বাদ দিয়ে এক একটি প্যাকেট দিয়ে ৮০ থেকে ১০০ টাকা লাভ হয় । বদ্ধ ঘরে স্যাঁতস্যাঁতে জায়গায় ফলন ভালো পাওয়া যায়। ধীরে ধীরে এর ফলন কমে যায়। এক একটি প্যাকেট থেকে ৪ থেকে ৫ বার মাশরুম পাওয়া যায়।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা আবু সৈয়দ মোঃ জোবায়দুল আলম বলেন,মাশরুম স্বাস্থ্যের জন্য বেশ উপকারী, সেই সঙ্গে এই সবজি অনেক অসুখের প্রতিষেধক হিসেবে কাজ করে। উদ্যোক্তা জিনিয়া আক্তারকে মাশরুম চাষে উৎসাহ ও ফলন বৃদ্ধি করতে কৃষি বিভাগের পক্ষ থেকে সব ধরনের সহায়তা দেওয়া হচ্ছে ।

দৈনিক বগুড়া
দৈনিক বগুড়া