• শুক্রবার   ০৩ ডিসেম্বর ২০২১ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৮ ১৪২৮

  • || ২৭ রবিউস সানি ১৪৪৩

টুথ ব্রাশ বাথরুমে রেখে ডেকে আনছেন যেসব ভয়ানক রোগ

দৈনিক বগুড়া

প্রকাশিত: ১৫ অক্টোবর ২০২১  

দাঁতের সুস্থতায় নিয়ম করে দুই বেলা দাঁত ব্রাশ করার পরামর্শ দিয়ে থাকেন চিকিৎসকরা। দাঁত পরিষ্কার করতে সবাই টুথ ব্রাশ ব্যবহার করে থাকেন। যা দাঁত পরিষ্কার করতে দারুণ কার্যকরী। ব্যবহারের সুবিধার্থে সবাই টুথ ব্রাশ বাথরুমেই রাখেন। তাছাড়া শহরকেন্দ্রিক বাসা মানেই টয়লেট ও গোসলখানা একসঙ্গে। তাই এইসব বাথরুমে পেস্ট ও টুথ ব্রাশ রাখেন প্রায় শতভাগ মানুষই।

জানেন কি, এমন জায়গায় টুথ ব্রাশ দিয়ে দাঁত পরিষ্কারের চেয়ে মুখ ও শরীরই নোংরা করে ফেলছেন!

সম্প্রতি এক গবেষণায় বলা হয়েছে, বাথরুমে রাখা টুথ ব্রাশে মলজনিত জীবাণু থাকার শঙ্কা ৬০ শতাংশ। সেই জীবাণুর ৮০ শতাংশই আসে অন্যের মল থেকে।

যুক্তরাষ্ট্রের কানেকটিকাট অঙ্গরাজ্যে অবস্থিত কুইনিপ্যাক ইউনিভার্সিটির এ গবেষণা করেছে। তাদের গবেষণা প্রতিবেদনে দেখা গেছে, মলের ভেতর থাকা জীবাণু বাতাসে ভেসে টুথ ব্রাশে চলে আসে। এমনকি টুথ ব্রাশ কভার দিয়ে মুড়িয়ে রাখলে তাতে জীবাণুর বিস্তার আরো সহজ হয়।

কারণ ব্রাশ করার পর সেটা কভার দিয়ে ঢেকে ফেলায় ব্রাশ শুকানোর সুযোগ পায় না। স্যাঁতসেঁতে হয়ে থাকার ফলে জীবাণু আরো পাকাপোক্তভাবে বাসা বাঁধতে পারে। ঠাণ্ডা পানি, গরম পানি এমনকি মাউথওয়াশ দিয়ে ধুয়েও এ অবস্থার তেমন একটা পরিবর্তন করা যায় না।

বিশেষজ্ঞদের মতে, এটার একমাত্র সমাধান হতে পারে নিজের টুথ ব্রাশটা বাথরুমের পরিবর্তে ঘরে রাখা। তা না হলে ডায়রিয়া, চামড়ায় ফুঁসকুড়ি, কানে সংক্রমণসহ নানা রোগব্যাধি শরীরে বাসা বাঁধতে পারে।

দৈনিক বগুড়া
দৈনিক বগুড়া