• শনিবার   ২১ মে ২০২২ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৭ ১৪২৯

  • || ১৯ শাওয়াল ১৪৪৩

চিঠি লিখে উধাও বর, পুলিশ নিয়ে হাজির কনেপক্ষ

দৈনিক বগুড়া

প্রকাশিত: ৫ মে ২০২২  

প্যান্ডেল থেকে মেনু, বিয়ের জিনিসপত্র, খাবার-দাবার সব প্রস্তুত। রাত পোহালেই বিয়ে, বাজবে সানাই। কিন্তু হঠাৎ উধাও পাত্র।তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে তোলপাড় শিলিগুড়ি। বিষয়টি নিয়ে ফেসবুকেও আলোচনা-সমালোচনা হচ্ছে। কোথায় গেলো পাত্র?

জানা গেছে, শিলিগুড়ির ভক্তিনগরে বাস করেন প্রসেনজিৎ গোস্বামী। তার সঙ্গে বিয়ে ঠিক হয়েছিল বাঘাযতীন কলোনির এক তরুণীর। মাস তিনেক আগে বিয়ে ঠিক হওয়ার পর প্রি-ওয়েডিং শুটও করেছে যুগল। মঙ্গলবার ছিল বিয়ের দিন। ফলে সোমবারের মধ্যেই প্রস্তুতি শেষ করতে হয়েছিল।

পাত্রীর পরিবারের দাবি, বিয়ের আগেরদিন তাদের ফোন করে পাত্রের বাড়ির পক্ষ থেকে জানানো হয়, ছেলে ইসলামপুরে গেছে কাজে। তবে নির্ধারিত সময়েই বিয়ে হবে।

এদিকে চিঠি লিখে বাড়ি ছেড়েছেন প্রসেনজিৎ। তাতে লেখা ছিল, ‘এই বিয়ে আমি করব না।’ তাকে বাড়ি ফেরানো হাজারও চেষ্টা করেও লাভ হয়নি। এদিকে ততক্ষণে পাত্রীপক্ষ জেনে গেছে, পাত্র উধাও!

প্রসেনজিতের খোঁজে পুলিশ নিয়ে তার বাড়িতে হাজির হয় হবু শ্বশুরবাড়ির লোকজন। ঘটনাকে কেন্দ্র করে অশান্তি হয়। পাত্রীপক্ষের অভিযোগ, পরিবারের লোকেরা লুকিয়ে রেখেছে প্রসেনজিৎকে।

এদিকে পাত্রের পরিবারের দাবি, পাত্রীর পরিবার দুর্ব্যবহার করেছিল। সেই কারণে পাত্র বিয়ে করবে না জানিয়ে চলে গেছে।

কারণ যাই হোক, বিয়ের আগে পাত্রের এই উধাও হয়ে যাওয়ার ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। ভেঙে পড়েছে পরিবারের লোকেরা। বিয়ে উপলক্ষে এলাহী আয়োজন করে এই ঘটনায় আর্থিক ক্ষতির মুখে দুই পরিবার। তবে দোষারোপ পাল্টা দোষারোপের পালা চললেও এখনও পাত্রের উধাও হয়ে যাওয়ার কারণ স্পষ্ট নয়।

দৈনিক বগুড়া
দৈনিক বগুড়া