• শুক্রবার   ২১ জানুয়ারি ২০২২ ||

  • মাঘ ৮ ১৪২৮

  • || ১৭ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

চা পাতায় ভেজাল মেশানো কিনা যেভাবে বুঝবেন

দৈনিক বগুড়া

প্রকাশিত: ৬ নভেম্বর ২০২১  

সকালে ঘুম থেকে উঠে এক কাপ গরম চা না খেলে দিনটাই যেন ভালো কাটে না। শরীর চাঙা করতে এক কাপ চায়ের জুড়ি নেই। কিন্তু ভেজালের এই ভিড়ে চা পাতাতেও থাকে ভেজাল। অসাধু ব্যবসায়ীরা সামান্য কিছু লাভের আশায় চা পাতাতেও ভেজাল মিশিয়ে থাকেন।

তবে চা পাতাতে ভেজাল মেশানো আছে কিনা বুঝে নিতে পারবেন ছোট্ট একটি পরীক্ষার মাধ্যমে। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক কীভাবে পরীক্ষাটি করবেন-

চা পাতা খাঁটি না ভেজাল তা পরীক্ষা করতে হলে ফিল্টার পেপার ব্যবহার করতে হবে। প্রথমে ফিল্টার পেপারে চায়ের পাতা ছড়িয়ে দিন এবং কাগজটি আর্দ্র করার জন্য তার উপর থেকে পানি ছিটিয়ে দিন। কয়েক মিনিট পরে পাতাগুলো সরিয়ে পানি দিয়ে কাগজটি ধুয়ে ফেলুন। তারপর আলোর নিচে কাগজের দাগগুলো দেখুন।

চা পাতায় ভেজাল না থাকলে, কাগজে কোনো দাগ দেখাবে না। অন্যদিকে ভেজাল চা পাতার ফিল্টার পেপারে গাঢ় বাদামি দাগ দেখা যাবে।

ভেজাল চায়ের ক্ষতিকর দিক

বিশেষজ্ঞদের মতে, পরিমাণমতো চা পান আপনার জন্য উপকারী হতে পারে। কিছু গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে ফ্ল্যাভোনয়েড এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ চা হৃদরোগের ঝুঁকি কমাতে পারে। শুধু তাই নয়, এটি কোলেস্টেরল কমানোর প্রক্রিয়া এবং রক্তনালীগুলোর কার্যকারিতাও উন্নত করে।

তবে চায়ে ভেজাল থাকলে তা স্বাস্থ্যের উপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। ভেজাল মেশানোর জন্য যে পদার্থ ব্যবহার করা হয়েছে তার উপর নির্ভর করে, এটি আপনার স্বাস্থ্যের জন্য কতটা ক্ষতিকর হতে পারে। কখনো কখনো রঙিন পদার্থ চা পাতায় যোগ করা হয়। এমন পরিস্থিতিতে প্রক্রিয়াজাত ও রঙিন চা ব্যবহার আপনার লিভারে ক্ষতি করতে পারে।

দৈনিক বগুড়া
দৈনিক বগুড়া