রোববার, ২৬ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

লোহার সিলিন্ডারে ৭ দশক কাটিয়ে মারা গেলেন পল

লোহার সিলিন্ডারে ৭ দশক কাটিয়ে মারা গেলেন পল

সংগৃহীত

৭০ বছর লোহার সিলিন্ ডারে কাটিয়ে অবশেষে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক এবং দেশটির টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের বাসিন্দা পল আলেক্সান্ডার। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৮ বছর।

বুধবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে এক পোস্টে পলের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন তার ছোটো ভাই ফিলিপ আলেক্সান্ডার। ফেসবুক পোস্টে ফিলিপ বলেছেন, ‘একজন মহৎ মানুষের সঙ্গে দীর্ঘদিন থাকতে পারা এবং তার জীবনের অংশ হতে পারা নিশ্চিতভাবেই খুবই সম্মানের ব্যাপার। আমার ভাই লাখ লাখ মানুষের অনুপ্রেরণা ছিলেন।’

কী কারণে পলের মৃত্যু হয়েছে, তা ফেসবুক পোস্টে উল্লেখ করেননি ফিলিপ।

১৯৫২ সালে ৬ বছর বয়সে পোলিওতে আক্রান্ত হয়েছিলেন পল আলেক্সান্ডার। পরে তিনি সেরে ওঠেন ঠিকই, কিন্তু তার ঘাড়-গলার নিচের পুরো শরীর অবশ হয়ে যায়। এ সময় ডাক্তারের পরামর্শে তাকে একটি বিশেষ সিলিন্ডারে ঢোকানো হয়, সেখানে তার ঘাড় ও মাথা বাইরে ছিল।

পোলিওতে পলের ফুসফুস মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল। সিলিন্ডারটিতে একটি লোহার ফুসফুস ছিল এবং এমন প্রযুক্তি অনুসরণ করে সিলিন্ডারটি গঠন করা হয়েছিল, যে শ্বাস নিতে গেলে লোহার ফুসফুসটির সহযোগিতা লাগতো তার। যদি সিলিন্ডার থেকে তাকে বের করা হতো, তাহলে শ্বাস না নিতে পেরে কয়েক মুহূর্তের মধ্যে মৃত্যু হতো তার।

এই সিলিন্ডারে থাকা অবস্থাতেই পল স্কুল-কলেজের পড়াশোনা শেষ করেছেন, আইনের ওপর স্নাতক ডিগ্রি দিয়েছেন এবং অ্যাডভোকেটশিপ পরীক্ষায় অংশ নিয়ে তাতে উত্তীর্ণও হন।

‘মানুষ হিসেবে পল চমৎকার ছিলেন। তিনি খেতে ভালবাসতেন, ওয়াইন ভালবাসতেন, আড্ডা দিতে ভালবাসতেন…সবচেয়ে ভালবাসতেন নতুন কিছু শিখতে। সবসময় হাশিখুশি থাকতেন তিনি,’ ফেসবুক পোস্টে বলেছেন পল।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, গত ফেব্রুয়ারিতে করোনা হয়েছিল পলের। তার পর থেকেই শারীরিকভাবে খুব দুর্বল ছিলেন তিনি।

সূত্র: ডেইলি-বাংলাদেশ

সর্বশেষ: