• শুক্রবার   ০৩ ডিসেম্বর ২০২১ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৮ ১৪২৮

  • || ২৭ রবিউস সানি ১৪৪৩

সারিয়াকান্দিতে ফেরী যোগাযোগ স্থাপনে নৌপরিবহণ কর্তৃপক্ষের কর্মশালা

দৈনিক বগুড়া

প্রকাশিত: ২৪ নভেম্বর ২০২১  

বগুড়ার সারিয়াকান্দি-জামালপুরের মাদারগঞ্জ যমুনা নদীর মধ্যকার ফেরী যোগাযোগ স্থাপন শীর্ষক সমীক্ষার উপর আনুষ্ঠানিক মত বিনিময় কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার সকালে উপজেলা পরিষদ হলরুমে এই কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ অভ্যন্তরীন নৌ-পরিবহণ কর্তৃপক্ষের কর্মকর্তারা এ কর্মশালার আয়োজন করেন। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বগুড়া-১ সাংসদ সাহাদারা মান্নান।

কর্মশালার সভাপতিত্ব করেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ রেজাউল করিম। কর্মশালায় সাংসদ সাহাদারা মান্নান বলেন, নৌ-ঘাটটি অপার সম্ভাবনার একটি যোগাযোগ পয়েন্ট। যে কোন উপায়ে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব নৌ-পথটি সচল করতে হবে। উত্তরাঞ্চলবাসীর জন্য নৌ-পথটিকে দ্বিতীয় পথ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে হবে।

কর্মশালায় বিশেষ অতিথি ছিলেন, নৌ-পরিবহণ কর্তৃপক্ষের প্রধান প্রকৌশলী মহিদুল ইসলাম। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, মাদারগঞ্জ ও সারিয়াকান্দি উপজেলার কালিতলা এবং মথুরাপাড়া ঘাটের মধ্যে একটি প্রচলিত নৌ-পথ রয়েছে। পর্যাপ্ত অবকাঠামো এবং উন্নত পরিসেবা চালু করা গেলে উভয় প্রান্তের যোগাযোগ ও ব্যবসা-বাণিজ্য আরো সম্প্রসারিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

বর্তমান পরিস্থিতি অনুযায়ী মাদারগঞ্জের জামথল ঘাটের সম্মুখে একটি বড় চর জেগেছে। যা বর্ষার মৌসুমে নিমজ্জিত থাকলেও শুষ্ক মৌসুমে দৃশ্যমান হয়। নৌ-ঘাটটির নদীতে পানির প্রবাহ হ্রাস পাওয়ায় ১.৫ কি:মি: চরের দিকে স্থান পরিবর্তন করা প্রয়োজন হয়ে পরেছে। নৌকা ও ফেরী চলাচলের জন্য নদীর নাব্যতা বৃদ্ধি করা প্রয়োজন।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের বগুড়া বিভাগের সারিয়াকান্দিস্থ উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী (এস.ডি.ই) আবদুর রহমান তাসকিয়া বলেন, কালিতলায় ফেরী ঘাট স্থাপন করলে গ্রোয়েন বাঁধের সমূহ ক্ষতির সম্ভাবনা রয়েছে। অতএব, ঘাটটি স্থাপনের জন্য স্থান পরিবর্তন করা প্রয়োজন।

এছাড়াও  কর্মশালায় আরো বক্তব্য রাখেন, উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আইয়ুব আলী তরফদার, পৌর মেয়র মতিউর রহমান মতি, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি  মমতাজুর রহমান, সাংবাদিক রফিকুল ইসলাম, কর্ণিবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান আজাহার আলী মন্ডল প্রমূখ।

দৈনিক বগুড়া
দৈনিক বগুড়া