• বৃহস্পতিবার   ২০ জানুয়ারি ২০২২ ||

  • মাঘ ৭ ১৪২৮

  • || ১৬ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

দেশকে ভালবাসলে কোন ব্যক্তি,গোষ্ঠীই জঙ্গীবাদে জড়াবে না:এসপি সুদীপ

দৈনিক বগুড়া

প্রকাশিত: ১৩ জানুয়ারি ২০২২  

বগুড়া জেলা পুলিশ সুপার সুদীপ কুমার চক্রবত্তর্ী বিপিএম বলেছেন, দেশকে ভালবাসলে কোন ব্যক্তি বা গোষ্ঠীই জঙ্গীবাদে জড়াবে না। যে ব্যক্তি জাতীয় সঙ্গীত, জাতীয় পতাকা এবং দেশের মানচিত্র কে সম্মান দিতে জানে তার মাঝে কোনদিন জঙ্গীবাদ এবং উগ্রবাদ জন্মাতে পারেনা। একটি অপশক্তি প্রতিনিয়ত জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাসবাদ কে উস্কে দেওয়ার প্রচেষ্টায় থাকে কিন্তু মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় নিজেদের আদর্শিক জায়গায় পরিবর্তন এনে দেশমাতৃকার সেবায় সকল অপশক্তিকে রুখে দিতে হবে।

আর এক্ষেত্রে জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে তরুণ প্রজন্মরা হবে আগামীর পথপ্রদর্শক। বর্তমান বাংলাদেশের উন্নয়নের অপ্রতিরোধ্য অগ্রযাত্রায় দেশকে এগিয়ে নিতে কোমলমতি শিক্ষাথর্ীরাই নেতৃত্ব দিবে তাই তাদের মাঝে ছোট থেকেই ইতিবাচক সকল কিছুর চচার্ বৃদ্ধি করতে হবে।বাংলাদেশ পুলিশের সন্ত্রাস দমন ও আন্তজার্তিক অপরাধ প্রতিরোধ কেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় বগুড়া জেলা পুলিশ এবং কাউন্টার টেরোরিজম এন্ড ট্রান্সন্যাশনাল ইউনিট (সিটিটিসি) এর আয়োজনে বুধবার দুপুরে বগুড়া পুলিশ লাইন্স অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত ‘উগ্রবাদ প্রতিরোধে ছাত্র-ছাত্রীদের ভূমিকা’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসপি সুদীপ চক্রবত্তর্ী উপোরোক্ত কথাগুলি বলেন।

আদমদিঘী সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার নাজরান রউফের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য ডিএমপি’র সিটিটিসি ইউনিটের সহকারী পুলিশ কমিশনার (এসি) নাজমুল ইসলাম এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বগুড়া পুলিশ লাইন্স স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ শাহাদৎ আলম ঝুনু। এছাড়াও এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার যথাক্রমে আব্দুর রশিদ (অপরাধ) ও মোতাহার হোসেন (ডিএসবি)। অনুষ্ঠানে কোমলমতি শিক্ষাথর্ীরা যেন কারো প্ররোচনায় কিংবা নিজেদের অজ্ঞতা থেকে অনিচ্ছাকৃত কোন উগ্রবাদ বা জঙ্গিবাদ সম্পর্কিত কর্মকান্ডে জরিয়ে না পরে সেই লক্ষ্যে তাদের বিস্তারিত আলোচনার মাধ্যমে সচেতন করা হয়। শুধু তাই নয় দেশ থেকে জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস চিরতরে নির্মর্ূলে সকলে যেন ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করা সম্ভব হয় সেই লক্ষ্যে নিজ নিজ অবস্থান থেকে কিভাবে ভূমিকা রাখা যায় সেই বিষয়েও নানাবিধ আলোচনা করা হয়।

উগ্রবাদ প্রতিরোধে নানা শ্রেণীপেশার মানুষের অংশগ্রহণে বগুড়ায় ৩দিন ব্যাপী অনুষ্ঠিত জেলা পুলিশ ও সিটিটিসি এর ব্যতিক্রমী এই উদ্যোগ প্রসঙ্গে জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) আব্দুর রশিদ জানান, বাংলাদেশ পুলিশের কর্ণধার আইজিপি ড. বেনজীর আহম্মেদ এর নির্দেশনায় সিটিটিসি’র প্রধান ডিআইজি আসাদুজ্জামান এর নেতৃত্বে উগ্রবাদ প্রতিরোধে এই সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইন সারাদেশেই পর্যায়ক্রমে হচ্ছে যার ধারাবাহিকতায় বগুড়ায় অত্যন্ত সফলতার সাথে গত সোমবার ১ম ধাপে গ্রাম পুলিশ, মঙ্গলবার জেলার সম্মুখ সারির আলেম-ওলামা এবং মসজিদের ইমামগণ, সর্বশেষ বুধবার সকালে জেলা পুলিশ ও আনসার বাহিনীর দেড় শতাধিক সদস্য এবং দুপুর থেকে বিকেল পর্যন্ত জেলার ১০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের দেড় শতাধিক শিক্ষাথর্ী সর্বমোট ৩দিনে ৬’শ মানুষকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে এই আলোচনায় অংশগ্রহণ নিশ্চিতের মাধ্যমে জঙ্গীবাদ ও উগ্রবাদ প্রতিরোধে সচেতনতার বলয় তৈরি এবং ভবিষ্যতে নিজ নিজ অবস্থান থেকে নিজেদের করণীয় বিষয়ে ইতিবাচক মানসিকতা তৈরি করা সম্ভব হয়েছে।

দৈনিক বগুড়া
দৈনিক বগুড়া