বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১

শেরপুরে দুর্নীতি বিরোধী বিতর্ক প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ

শেরপুরে দুর্নীতি বিরোধী বিতর্ক প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ

সংগৃহীত

‘রুখবো দুর্নীতি, গড়বো দেশ হবে সোনার বাংলাদেশ’-এই প্রতিপাদ্য বিষয়কে সামনে নিয়ে বগুড়ার শেরপুরে দুর্নীতি বিরোধী বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (২০মে) দুপুরে শহরের শেরপুর পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাকক্ষে এই প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্ব ও বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়

শিক্ষার্থীদের মধ্যে নেতিকতার উন্নয়ন ও উত্তম চর্চা বিকাশের প্রয়াসে দুর্নীতি দমন কমিশন বগুড়া জেলা কার্যালয় এবং উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটি এই বিতর্ক প্রতিযোগিতার আয়োজন করেন। এতে উপজেলার আটটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্র-ছাত্রীরা অংশগ্রহণ করেন।

চূড়ান্ত পর্বে শেরপুর পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও বগুড়া পল্লী উন্নয়ন একাডেমী ল্যাবরেটরি স্কুল এন্ড কলেজ (আরডিএ)  অংশগ্রহণ করেন। এরমধ্যে আরডিএ স্কুল এন্ড কলেজ বিজয়ী হয়।  সেইসঙ্গে একই প্রতিষ্ঠানের ছাত্রী মোছা. ফাতেমা তাসনিম আফিয়া শ্রেষ্ঠ বক্তা নির্বাচিত হন।

বির্তকের বিষয় ছিল ‘প্রতিরোধ নয়, দুর্নীতি নির্মূলের কার্যকর উপায়’। প্রতিযোগিতায় বিজয়ী দলে অংশগ্রহণ করেন মোছা. ফাতেমা তাসনিম আফিয়া  (দলনেতা), শাহরিয়ার সাঈম, মুশফিকা রহমান এবং রানার্স আপ দলে  সমৃদ্ধি কর্মকার (দলনেতা), মৌমিতা চৌহান ও শৈলী মোহন্ত অংশ নেন।

বিচারকের দায়িত্ব পালন করেন- সেরুয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নুরুল ইসলাম জিন্নাহ, জামুর ইসলামিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাইফুল ইসলাম, শেরপুর পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের  প্রধান শিক্ষক আবু সাঈদ ও উচরং বন্দে আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সেলিম উদ্দিন।

বির্তক শেষে উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি নিমাই ঘোষের সভাপতিত্বে পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন-উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সুমন জিহাদী। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- বগুড়া দুর্নীতি দমন কমিশনের সহকারি পরিচালক তারিকুর রহমান, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. নজরুল ইসলাম। এছাড়া অন্যান্যদের মধ্যে দুর্নীতি দমন কমিশন বগুড়ার উপ-সহকারি পরিচালক রুকুনুজ্জামান, উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সহ-সভাপতি আইয়ুব আলী, গোলাম মোস্তফা ও সদস্য আফরোজা নার্গিস সাথী, প্রতিভা রানী. মৌসুমী তাম্বুলী ও রামকৃষ্ণ মোহন্ত। এরপর অনুষ্ঠানের অতিথিরা বিজয়ী ও রানার্স আপ দলের হাতে পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়। ওই অনুষ্ঠানে শিক্ষক, সাংবাদিক, ব্যবসায়ীসহ নানা শ্রেণীপেশার প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

সর্বশেষ: