শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১

নন্দীগ্রামে কোরবানি পশুর হাটে ভ্রাম্যমাণ ভেটেরিনারি মেডিকেল টিম

নন্দীগ্রামে কোরবানি পশুর হাটে ভ্রাম্যমাণ ভেটেরিনারি মেডিকেল টিম

সংগৃহীত

শেষ মুহূর্তে জমে উঠেছে নন্দীগ্রাম উপজেলার কোরবানির পশুর হাটগুলো। পশুর হাটে ক্রেতা বিক্রেতাদের সুবিধার্থে বিভিন্ন হাট-বাজারে চলছে প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের ভ্রাম্যমাণ ভেটেরিনারি মেডিকেল টিমের ক্যাম্প। 

বুধবার উপজেলার কুন্দারহাটে কোরবানির পশুরহাটে নন্দীগ্রাম উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা কল্পনা রানী রায়ের নেতৃত্বে ৪ জনের ১টি ভ্রাম্যমাণ ভেটেরিনারি মেডিকেল টিম কাজ করতে দেখা গেছে।

এই ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল টিম চালু করায় ক্রেতা-বিক্রেতারা মনে করেন কোরবানির পশুর হাটে সুস্থ সবল গরু ক্রয়ে সুবিধা হয়।

অপর দিকে বিক্রেতা মনে করেন পশুর হাটে হঠাৎ পশু অসুস্থ হয়ে পড়লে গরু নিয়ে দুর্ভোগ পোহাতে হয়না।

প্রাণিসম্পদ অফিস সূত্রে জানা যায় , গত ৭জুন থেকে নন্দীগ্রাম উপজেলার সকল পশুরহাটে নন্দীগ্রাম উপজেলা প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের ৪ জনের ১টি টিম দিনব্যাপী ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প পরিচালনা করছেন।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, দিনব্যাপী হাটগুলোতে ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্পের কতর্ব্যরত প্রাণী চিকিৎসকরা সেবা দিচ্ছেন। এসময় গরু ক্রেতা বিক্রেতাদের সার্বিক বিষয়ে সেবা ও পরামর্শ দিচ্ছেন। এবং কোরবানির গরু ক্রয়ে সচেতন করতে বিভিন্ন দিক নির্দেশনা দেয়া হচ্ছে।

পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষে নন্দীগ্রাম উপজেলা প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর  কর্তৃক গঠিত ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্পের সেবা নিতে ক্রেতা বিক্রেতাদের উৎসাহ উদ্দীপনা লক্ষ্য করা যাচ্ছে।

উপজেলা প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের আয়োজনে ভ্রাম্যমাণ ভেটেরিনারি মেডিকেল টিমের ক্যাম্প

কার্যক্রম পরিচালনা করায় উপজেলা প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর কে ধন্যবাদ জানান ক্রেতা ও বিক্রেতারা।

এবিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা কল্পনা রানী রায় বলেন, একজন ক্রেতা সুস্থ পশু কিভাবে নির্বাচন করবেন? ক্রয় করে পশু বাড়িতে নিয়ে যাওয়ার পর করনীয় কি? এই বিষয়ে আমরা সার্বিক পরামর্শ দিচ্ছি। সুস্থ কোরবানির পশু চেনা ও সচেতনতা মূলক লিফলেট বিতরণ করা হচ্ছে। এছাড়াও বিভিন্ন জায়গা থেকে হাটে আনা গবাদি পশু গুলোর সমস্যা হলে আমরা তৎক্ষণাৎ সেবা দিয়ে যাচ্ছি।

সর্বশেষ: