• বৃহস্পতিবার   ২০ জানুয়ারি ২০২২ ||

  • মাঘ ৭ ১৪২৮

  • || ১৬ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

স্মার্টফোনে ইন্টারনেট স্পিড বাড়ানোর উপায়

দৈনিক বগুড়া

প্রকাশিত: ১১ জানুয়ারি ২০২২  

মোবাইল ডাটা কিংবা ওয়াইফাইয়ের ইন্টারনেট যেটাই ব্যবহার করুন না কেন, ট্রাফিকের সমস্যায় পড়েন না এমন কাউকে খুঁজে পাওয়া মুশকিল। কোনো প্রয়জনীয় কিছু ডাউনলোড দিচ্ছেন কিংবা অনলাইন ক্লাস। আবার ধরুন প্রয়োজনীয় মিটিংয়ে জয়েন করেছেন নেট ঠিকমতো কাজ করছে না। এমন সময় মেজাজ ঠিক রাখা কিন্তু খুবই মুশকিল।

কেবল অপারেটরদের কাছে অনেক সময় সঠিক স্পিড পাওয়া যায় না বলে অভিযোগ করেন অনেকে। কিন্তু এই সমস্যার জন্য শুধু যে ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডাররা দায়ী, এমনটা নয়। আপনার স্মার্টফোনের বেশ কিছু সমস্যার কারণেও ইন্টারনেট স্পিড কম হতে পারে।

চলুন জেনে নেওয়া যাক সেসব সমস্যা এবং সমাধানগুলো-

> ইন্টারনেট স্পিড কমে যাওয়ার অন্যতম কারণ কিন্তু ফোনের ক্যাশ মেমরি ভর্তি হওয়া। এজন্য নির্দিষ্ট সময় অন্তর ফোনের ক্যাশ মেমরি ক্লিয়ার করুন। প্রতিদিন ক্লিয়ার করতে পারলে সবচেয়ে ভালো হয়। মূলত ব্রাউজ হিস্ট্রি জমে থাকে এই মেমরির মধ্যে। তাই নিয়মিত এই মেমরি ক্লিয়ার করা দরকার।

> ফোনের ইন্টারনেট স্লো হলে আরেকটি কাজ করতে পারেন। আপনার স্মার্টফোনে থাকা প্রয়োজনীয় অ্যাপগুলো আনইন্সটল করে দিন। ফোনের মধ্যে বেশ কিছু অ্যাপ থাকে যেগুলো সর্বদা চলতে থাকে। ফলে ইন্টারনেট ব্য়ান্ডউইদের বেশ কিছুটা সেই সব অ্যাপ নিয়ে নেয়। এতে ইন্টারনেট স্লো হয়ে যায়।

> স্পিড বৃদ্ধি করে এমন কিছু অ্যাপ ফোনে ইন্সটল করে নিতে পারেন। এই অ্যাপগুলো ব্যবহার করলে ফোনের ইন্টারনেট স্পিড অনেকটাই বাড়ে। Google Play Store অথবা App Store -এ সহজেই সেগুলো পেয়ে যাবেন।

> নিশ্চয়ই খেয়াল করেছেন বিভিন্ন ওয়েবসাইট খুললেই একাধিক পপ আপ অ্যাড স্ক্রিনে ভেসে ওঠে। সেই সব অ্যাডগুলোর কারণে ইন্টারনেট স্পিড কম হতে পারে। তাই ফোনে কোনো একটি অ্যাড ব্লকার অ্যাপ ব্যবহার করতে পারেন। এতে ইন্টারনেট স্পিড বাড়বে খানিকটা হলেও।

> ব্রাউজার পরিবর্তন করে দেখতে পারেন। অনেকসময় ব্রাউজারের কারণেও কোনো ওয়েবপেজ খুলতে দেরি হয়। শুধু তাই নয় বিশেষ বিশেষ ওয়েবসাইটও বিভিন্ন ব্রাউজারে খোলে না। তাই কোনো একটি ওয়েবপেজ একটি ব্রাউজারে খুলতে দীর্ঘ সময় লাগলে তা পরিবর্তন করে অন্য কোনো ব্রাউজারে খোলার চেষ্টা করতে পারেন।

> নেটওয়ার্ক টাইপ পরিবর্তন করতে পারেন। বর্তমানে প্রতিটি ফোনেই 2G, 3G, 4G অপশন থাকে। যদি আপনার ফোনে 3G বা 4G-র বদলে 2G করা থাকে তাহলে আপনি সঠিক স্পিড নাও পেতে পারেন। সেকারণে ফোনের নেটওয়ার্ক সেটিংসে গিয়ে একবার দেখে নিন। 2G করা থাকলে তা বদলে 4G করে দিন।

> ফোন রিস্টার্ট দিয়ে দেখুন। অনেক সময় ফোনের ইন্টারন্যাল সমস্যার কারণেও সঠিক স্পিড নাও পেতে পারেন। সেক্ষেত্রে আপনার ফোনটির সুইচ অফ করে অন করুন। এতে ফোনটি রিবুট হওয়ার ফলে সেটিংস সঠিক হবে এবং কনফিগারেশন সঠিক হবে। ফলে ইন্টারনেট স্পিড বেশি হবে খানিকটা।

দৈনিক বগুড়া
দৈনিক বগুড়া