বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১

হোয়াটসঅ্যাপে নতুন স্ক্যাম, ফাঁদে পা দিলেই সর্বনাশ

হোয়াটসঅ্যাপে নতুন স্ক্যাম, ফাঁদে পা দিলেই সর্বনাশ

সংগৃহীত

বর্তমানে বিভিন্নভাবে অনলাইন স্ক্যাম সম্পর্কে সাধারণ মানুষকে সচেতন করা হচ্ছে। তবুও প্রতারকরা নিত্য নতুন কৌশল অবলম্বন করায় না চাইতেও তাদের ফাঁদে পা দিচ্ছেন অনেক মানুষ। সম্প্রতি, এরকমই নতুন একটি অনলাইন স্ক্যামের ঘটনা প্রকাশ্যে এসেছে, যেখানে দিল্লির এক ব্যক্তিকে স্টক মার্কেটে ইনভেস্টের প্রলোভন দেখিয়ে প্রতারকেরা হাতিয়ে নিয়েছে প্রায় এক কোটি টাকা।

টিওআইয়ের একটি রিপোর্ট অনুসারে, প্রতারকরা প্রথমে অজানা একটি নম্বর থেকে উত্তর-পশ্চিম দিল্লির শালিমার বাগের ওই বাসিন্দার সঙ্গে যোগাযোগ করে। পরে অধিক রিটার্নের প্রতিশ্রুতি দিয়ে স্টক মার্কেটে ইনভেস্টমেন্ট করতে বলে। এরপর তাকে অফলাইন ইনভেস্টমেন্ট রিসার্চ গ্রুপ নামের একটি হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপের সঙ্গে যুক্ত করে, যেখানে আগে থেকেই প্রায় ১৫০ জন সদস্য উপস্থিত ছিল। আর গ্রুপে অংশগ্রহণকারীদের আস্থা অর্জনের জন্য প্রতিদিন স্টক মার্কেট সংক্রান্ত টিপস প্রদান করা হতো।

এরপর ১৯ জানুয়ারি ওই ব্যক্তি ৫০ হাজার টাকা ইনভেস্ট করে একটি ইতিবাচক রিটার্ন পেয়েছিলেন। যা দেখে তিনি প্রতারকদের বিশ্বাস করে আরও অর্থ বিনিয়োগ করতে রাজি হন। আর এইভাবে ৫৫ দিনের মধ্যে তিনি প্রায় ১ কোটি ১৩ লাখ টাকা বিনিয়োগ করেন। আর, এরপর তিনি যখন লভ্যাংশসহ নিজের বিনিয়োগ করা অর্থ দাবি করেন, তখন আর কোনো অর্থই ফিরে পাননি।

কীভাবে এই ধরনের প্রতারণা থেকে নিজেকে রক্ষা করবেন?

বিনিয়োগের আগে সবসময় পুঙ্খানুপুঙ্খ ও স্বাধীনভাবে গবেষণা করে দেখবেন। কখনও কোনও অজানা উৎস থেকে আসা টিপস বা সুপারিশের ওপর বিশ্বাস করবেন না।

কখনো কেউ যদি হাই রিটার্নের প্রতিশ্রুতি দেয়, তাহলে মনে রাখবেন এটি একটি প্রতারণা। কারণ স্টক মার্কেটে বিনিয়োগ করলে কখনোই হঠাৎ করে হাই রিটার্ন পাওয়া সম্ভব নয়।

বিনিয়োগ করার আগে যে প্ল্যাটফর্মে বিনিয়োগ করছেন, তার সম্পর্কে ভালোভাবে জেনে নিন।

প্রতারকরা প্রায়শই দ্রুত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করার জন্য চাপ দিতে থাকে। তাই যদি বিনিয়োগের ক্ষেত্রে কখনো কেউ এই ধরনের পরিস্থিতির সম্মুখীন হন তাহলে, তখনই সতর্ক হয়ে যাবেন।

সূত্র: ঢাকা পোষ্ট

সর্বশেষ: