রোববার, ২৬ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

হায়দরাবাদ-মুম্বাই ম্যাচে যত রেকর্ড হলো

হায়দরাবাদ-মুম্বাই ম্যাচে যত রেকর্ড হলো

সংগৃহীত

আইপিএলে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ডটি এতদিন ছিল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর দখলে। ২০১৩ সালে পুনে ওয়ারিয়র্সের বিপক্ষে ২৬৩ রান করেন ক্রিস গেইল-ডি ভিলিয়ার্সরা। সেই রেকর্ড ভাঙল অভিষেক শর্মা ও ক্লাসেনদের ব্যাটিং তাণ্ডবে। মাত্র ৩ উইকেট হারিয়ে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ করে ২৭৭ রান।

হায়দরাবাদ ও মুম্বাইয়ের ইনিংস মিলিয়ে বুধবার (২৭ মার্চ) রান হয়েছে ৫২৩। যা আইপিএলের ইতিহাসে সর্বোচ্চ। তার আগে এই রেকর্ডটি ছিল চেন্নাই সুপার কিংস ও রাজস্থান রয়্যালসের। ২০১০ সালে চিপকে দুই ইনিংস মিলিয়ে তারা করেছিল ৪৬৯ রান। ওই ম্যাচে ৬৯টি বাউন্ডারি হাঁকিয়েছিল দু’দল, আইপিএলে যা ছিল সর্বোচ্চ বাউন্ডারির রেকর্ড। তাদের রেকর্ডে ভাগ বসিয়েছে হায়দরাবাদ-মুম্বাই ম্যাচ।

আইপিএলে এর আগে দুই ইনিংস মিলিয়ে সর্বোচ্চ ছক্কা হয়েছিল ২০১৮ সালে। বেঙ্গালুরু ও চেন্নাই হাঁকিয়েছিল ৩৩টি ছক্কা। রাজিব গান্ধি স্টেডিয়ামে মুম্বাই ও হায়দরাবাদ হাঁকিয়েছে ৩৮টি ছক্কা। পুরুষদের টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটেও দুই ইনিংস মিলিয়ে সর্বোচ্চ ছক্কার রেকর্ড এখন হায়দরাবাদ ও মুম্বাইয়ের দখলে। এর আগে রেকর্ডটি ছিল বালখ লেজেন্ডস ও কাবুল জানানের দখলে। ওই ম্যাচে ৩৭ ছক্কা মেরেছিল দু’দল।

আইপিএলে এক ইনিংসে সর্বোচ্চ ছক্কা হাঁকানোর রেকর্ডটি বেঙ্গালুরুর দখলে। ২০১৩ সালে পুনের বিপক্ষে রেকর্ড গড়া ম্যাচে ২১টি ছক্কা মেরেছিল তারা। বুধবার হায়দরাবাদের বিপক্ষে মুম্বাই মেরেছে ২০টি ছক্কা, যা যৌথভাবে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। তাদের সমান ২০টি ছক্কা আছে বেঙ্গালুরু ও দিল্লি ক্যাপিটালসের।

২০২০ সালে পরে ব্যাট করে ২২৬ রান করেছিল রাজস্থান রয়্যালস। আইপিএলে দ্বিতীয় ইনিংসে এটা ছিল সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড। বুধবার রাতে ২৪৬ রান করে সেই রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে মুম্বাই।

সূত্র: ডেইলি বাংলাদেশ

সর্বশেষ: