• রোববার   ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ||

  • আশ্বিন ১০ ১৪২৯

  • || ২৮ সফর ১৪৪৪

তিস্তায় ধরা পড়ল ৯২ কেজির বাঘা আইড়

দৈনিক বগুড়া

প্রকাশিত: ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২  

তিস্তা নদীতে এক জেলের বড়শিতে ৯২ কেজি ওজনের বিশাল এক বাঘা আইড় মাছ ধরা পড়েছে। পরে মাছটি বিক্রির জন্য আনা হয় নীলফামারী শহরের বড় বাজারের মাছের আড়তে। সেখানে মাছটি কেটে বিক্রি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ব্যবসায়ীরা। প্রতি কেজির দাম ধরা হয়েছে ১৫০০ টাকা। 

বুধবার (১৪ সেপ্টেম্বর) সকালে তিস্তায় জালাল উদ্দিন নামে এক জেলের বরশিতে মাছটি ধরা পড়ে।  এদিকে বড় বাঘাইর মাছের খবর শুনে সেখানে ভিড় জমিয়েছে সাধারণ মানুষ। অনেকেই মাছটির সঙ্গে ছবিও তুলছেন। আবার অনেকেই মাছ কেনার জন্য দিচ্ছেন নামের তালিকা। বেশি দামের কারণে মাছ কিনতে না পারলেও দেখেই তৃপ্ত বলছেন অনেকে।

সৈয়দপুর থেকে মাছটি দেখতে আসা লিখন ইসলাম বলেন, সকালে ফেসবুকে জানতে পারলাম মাছটি এখানে আছে। শোনার পরপরই মাছটি দেখতে আসি। ১৫০০ টাকা কেজি একটু বেশি, তবে ভাবছি একটি ভাগ কিনব।

ক্রেতা সিফাত উদ্দিন বলেন, আমি কয়েকটা বাঘা আইড় মাছ দেখেছি তবে এত বড় মাছ দেখিনি। মাছটি দেখে এক ভাগ নেওয়ার জন্য নাম দিলাম। স্কুলছাত্র বকুল বলে, স্কুলে শুনলাম মাছের কথা। সব বাদ দিয়ে স্কুল পালায় আসলাম। এত বড় মাছ আমি দেখিনি কখনো।

মাছ কিনতে আসা নুরুল আমিন বলেন, এতো বড় মাছ আগে কখনও দেখিনি। শুনেছি অনেকবার নিজ চোখে আজ দেখলাম। কিনে নিয়ে যাই কেমন স্বাদ করে। আরেক ক্রেতা জাফর ইকবাল বলেন, সকাল থেকে শুনতেছি অনেক বড় মাছ বড় বাজারে বিক্রি হচ্ছে। সেজন্য কিনতে আসলাম।

তিস্তা নদী এলাকার বাসিন্দা আব্দুস সবুর বলেন, মাছটি জালাল উদ্দিন নামের এক জেলের বড়শিতে মাছটি ধরা পরে। পরে তিনি কেলাসু নামে এক মাছ ব্যবসায়ীর কাছে ১ লাখ ১০ হাজার টাকা দিয়ে বিক্রি করেন। তিস্তায় এত বড় মাছ পাওয়ায় আমরা নদী পারের মানুষ অনেক খুশি। আর নদীতে এতো সহজে এই রকম বড় মাছ পাওয়া যায়নি কখনও।

জেলে জালাল উদ্দিনের কাছ থেকে কেনা প্রথম মাছ ব্যবসায়ী কেলাসু চন্দ্র রায় বলেন, জেলে জালাল উদ্দিনের কাছ থেকে প্রথমে মাছটি কিনি। পরে নীলফামারীর মাছের আড়তে ১ হাজার টাকা কেজি দরে বিক্রি করি।

নীলফামারীর মাছ ব্যবসায়ী সাইদুল ইসলাম বলেন, আমরা মাছটি কিনি। মাছটির ওজন ৯২ কেজি। এখানে আমরা কেটে কেজি দরে মাছ বিক্রি করব। প্রতি কেজি ১৫০০ টাকা করে। ইতোমধ্যে ৬০ জনের নাম পেয়েছি।

দৈনিক বগুড়া
দৈনিক বগুড়া