• মঙ্গলবার   ১৫ জুন ২০২১ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৩১ ১৪২৮

  • || ০৫ জ্বিলকদ ১৪৪২

পাকা আমের যত স্বাস্থ্য উপকারিতা

দৈনিক বগুড়া

প্রকাশিত: ১ জুন ২০২১  

বাজারে এখন পাকা আমের মিষ্টি গন্ধ ভেসে বেড়াচ্ছে। দাম হাতের নাগালে থাকায় বাড়ছে এর চাহিদাও। এছাড়া আম পুষ্টিগুণেও অনন্য। অনেক কঠিন রোগ থেকেই দূরে থাকতে সহায়তা করে এই ফলটি। তাই পরিমিত আম খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন চিকিৎসকরা।

চলুন এবার পাকা আমের পুষ্টিগুণ ও উপকারিতা সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেয়া যাক-

আমের পুষ্টিগুণ

আমের পুষ্ঠিগুণ অশেষ। প্রতি ১০০ গ্রাম আমে ২৬ মিলিগ্রাম ভিটামিন সি রয়েছে। এছাড়া আমে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন- এ এবং ভিটামিন বি থাকে যা শরীরের জন্য অনেক উপকারী। খাবারের তালিকায় সব সময়ই আঁশযুক্ত খাবার থাকা দরকার। প্রতি ১০০ গ্রাম আমে ১.৫ গ্রাম আঁশ থাকে।

আমের উপকারিতা

>> ক্যান্সার প্রতিরোধেও আম সহায়ক। আমে রয়েছে উচ্চ পরিমাণ প্রোটিন যা জীবাণু থেকে দেহকে সুরক্ষা দেয়।

>> আম আঁশযুক্ত খাবার হওয়ায় কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে, পেট পরিষ্কার রাখে এবং রক্তের কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণ করে।

>> আয়রন ও সোডিয়ামের ঘাটতি পূরণে বেশ কার্যকরী আম। ত্বক ভালো রাখতেও পাকা আম খুব ভালো কাজ করে।

>> গবেষণায় দেখা গেছে, আম রক্তে গ্লুকোজ কমাতে সাহায্য করে। যা ডায়াবেটিকস রোগীদের জন্য উপকার। ওজন কমাতে চাইলে কাঁচা আম খেতে পারেন। কেননা পাকা আমে শর্করার পরিমাণ বেশি থাকে। এছাড়া ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে, হৃৎপিণ্ডের রোগের ঝুঁকি কমাতেও আম সাহায্য করে।

>> আমে রয়েছে ভিটামিন এ, যা দৃষ্টিশক্তি ভালো রাখে। চোখের চারপাশের শুষ্কভাবও দূর করে। হিমোগ্লোবিন তৈরিতে সাহায্য করে। খনিজ পদার্থ আয়রনের ভালো উৎস আম।

>> অ্যানিমিয়া আক্রান্ত রোগীদের জন্য ভালো ওষুধ হিসেবে কাজ করে আম। সন্তানসম্ভবা নারী এবং মেনোপোজ হওয়া নারীর আয়রনের ঘাটতি পূরণে আম বেশি উপকারী।

দৈনিক বগুড়া
দৈনিক বগুড়া