শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

কাউফলে রয়েছে অসাধারণ স্বাস্থ্য উপকারিতা

কাউফলে রয়েছে অসাধারণ স্বাস্থ্য উপকারিতা

সংগৃহীত

কাউ বা কাউফল বা  ম্যাঙ্গোস্টিন; বৈজ্ঞানিক নাম Garcinia cowa Roxb এক ধরনের অপ্রচলিত টক স্বাদের ফল। এর অন্যান্য নাম হলো- কাউয়া, কাগলিচু, তাহগালা, ক্যাফল, কাউ-গোলা ইত্যাদি।

এর গাছ মাঝারি আকৃতির বৃক্ষ জাতীয়, ডালপালা কম, উপরের দিকে ঝোপালো। গাছের রঙ কালচে। সাধারনত জঙ্গলে এই গাছ দেখা যায়। ফল কাঁচা অবস্থায় সবুজ ও পাকলে কমলা বা হলুদ হয়। ফলের ভেতর চার-পাঁচটি দানা থাকে। দানার সঙ্গে রসালো ভক্ষ্য অংশ থাকে, যা চুষে খেতে হয়। কাউ খেলে দাঁতে হলদেটে কষ লেগে যায় বলে ফলটি জনপ্রিয় নয়। ফলের আকার লিচুর সমান বা সামান্য বড় হয়।

বাংলাদেশ, ভারত, মালয়েশিয়া, দক্ষিণ চীন, লাওস, কম্বোডিয়া, ভিয়েতনাম ইত্যাদি দেশে কাউ গাছ দেখা যায়। ফল হিসেবে সরাসরি খাওয়া ছাড়াও কাউ দিয়ে জ্যাম তৈরি করা হয়। কাউ গাছের কষ থেকে রঙ ও বার্নিশ তৈরি হয়। মাঝারি আকৃতির চিরসবুজ এ গাছ কিছুটা কালো বর্ণের হয়। গাছে ফুল ধরে ডিসেম্বর-জানুয়ারি মাসে। আর ফল পাকে জুন-জুলাই মাসে। বাংলাদেশে সিলেট, মৌলভী বাজার, খাগড়াছড়ি ও রাঙামাটিতে কাউফলের দেখা মেলে বেশি। পিরোজপুর ও বাগেরহাট অঞ্চলেও এ ফল জন্মে। কাউফলের বিভিন্ন ধরনের পুষ্টিগুণ ও উপকারিতা রয়েছে।

কাউফলের উপকারিতা

মুখের অরুচি ভাব দূর করতে: হটাৎ করে মুখে অরুচি দেখা দিলে অরুচি ভাব দূর করার জন্য কাউ গাছের ফল খেলে মুখে রুচি ফিরে আসে।

অপুষ্টির সমস্যায়: অপুষ্টিজনিত সমস্যা দেখা দিলে কাউ গাছের ফল খেলে ভাল উপকার পাওয়া যায়।

খিচুনি নিরাময়ে: কাউ গাছের ছাল সিদ্ধ করে এই ক্বাথ সকাল বিকেল করে সেবন করলে খিচুনি রোগ ভালো হয়।

ঠান্ডার সমস্যায়: ঠান্ডা জনিত সমস্যা দেখা দিলে সকাল বিকেল কাউ গাছের ফল খেলে উপকার পাওয়া যায়।

আমাশয় নিরাময়ে: আমাশয় হলে কাউ গাছের ফল খেলে আমাশয়ে দ্রুত নিরাময় হয়ে যায়।

মাথা ধরা নিরাময়ে: মাথা ধরা নিরাময়ের জন্য কাউ গাছের ফল খেলে মাথা ধরায় দারুণ উপকার পাওয়া যায়।

সূত্র: ডেইলি বাংলাদেশ

সর্বশেষ: