• বুধবার   ০৮ ডিসেম্বর ২০২১ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২৪ ১৪২৮

  • || ০৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

হাসপাতালের বেডে বসে স্বজনদের খুঁজছে শিশুটি

দৈনিক বগুড়া

প্রকাশিত: ১২ নভেম্বর ২০১৯  

সিলেট থেকে ছেড়ে চট্টগ্রামে যাচ্ছিল উদয়ন এক্সপ্রেস। চট্টগ্রাম থেকে ছেড়ে ঢাকার দিকে আসছিল তূর্ণা নিশীতা। এমন অবস্থায় রাতের শেষ ভাগে মন্দবাগ স্টেশনের কাছে উদয়নকে ধাক্কা দেয় তূর্ণা নিশীতা। ট্রেনের লাইন পরিবর্তনের সময়টাতেই ওই দুর্ঘটনা ঘটে। এসময় আহত হয় এই শিশুটি। এরপরই তাকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়।

হাসপাতালের বেডে বসেও শিশুটি শুধু কাঁদছে। খুঁজছে তার মা-বাবাকে। কিন্তু এখনও খুঁজে পাওয়া যায়নি তার স্বজনদের। জানা যায়, মঙ্গলবার সকালে দুর্ঘটনাস্থল থেকে আহতবস্থায় তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, শিশুটি নিজের নামও বলতে পারছে না। ট্রেন দুর্ঘটনাস্থল থেকে সকালে শিশুটিকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। শিশুটির স্বজনদের খোঁজ করা হচ্ছে।

শিশুটির স্বজনদের খোঁজ করছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। কেউ শিশুটির অভিভাবকের সন্ধান দিতে পারলে এই (০১৮৭৮৯৮৩৭৩৬) ফোন নম্বরে যোগাযোগ করার অনুরোধ করা হয়েছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলায় আন্তঃনগর উদয়ন এক্সপ্রেস ও তুর্ণা নীশিথা ট্রেনের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৫ জনে দাঁড়িয়েছে। এ ঘটনায় বহু যাত্রী আহত হয়েছেন। সোমবার রাত পৌনে তিনটায় উপজেলার ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলপথের মন্দভাগ রেলওয়ে স্টেশনের ক্রসিংয়ে এ ঘটনা ঘটে।

দৈনিক বগুড়া
দৈনিক বগুড়া