• মঙ্গলবার   ১৫ জুন ২০২১ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৩১ ১৪২৮

  • || ০৫ জ্বিলকদ ১৪৪২

শেরপুরে বিয়ের প্রলোভনে নারীকে ধর্ষণ, যুবক আটক

দৈনিক বগুড়া

প্রকাশিত: ২৫ এপ্রিল ২০২১  

বগুড়ার শেরপুরে বিয়ের প্রলোভনে গার্মেন্টসের নারী কর্মীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। আজ রোববার (২৫ এপ্রিল) দুপুরে ধর্ষিতা ওই নারী বাদি হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নং-৬০।

 

এর আগে, শনিবার দিনগত রাতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে নিজ বসতবাড়ি থেকে মামলায় অভিযুক্ত সুমন খাঁ (২৮) নামের ওই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে। সে উপজেলার কুসুম্বী ইউনিয়নের দক্ষিণ আমইন হঠাৎপাড়া এলাকার তসলিম উদ্দিন খাঁর ছেলে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, উপজেলার দক্ষিণ আমইন হঠাৎপাড়া গ্রামের গোলাম রব্বানীর আঠার বছর বয়সী মেয়ে ঢাকার একটি গার্মেন্টসে চাকরি করেন। তবে মহামারী করোনার কারণে চাকরি চলে যাওয়ায় নিজ বাড়িতে অবস্থান করছেন। আর এই সুযোগ নিয়ে একইগ্রামের মুদি দোকানি সুমন খাঁ ওই নারীকে শারীরিক সম্পর্ক করার প্রস্তাব দেন। এতে রাজী না হওয়ায় নানাভাবে তাকে উত্যক্ত করতে থাকেন ওই ব্যক্তি। একপর্যায়ে বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে শহরতলীর দুবলাগাড়ী বাজারস্থ তারেক হাসানের বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়। এরপর সেখানে ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোরপূর্বক একাধিকবার ওই গার্মেন্টসের নারী কর্মীকে ধর্ষণ করা হয় বলে এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে।

শেরপুর থানার ওসি শহিদুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার বলেন, এ ঘটনায় থানায় মামলা নেওয়া হয়েছে। সেইসঙ্গে মামলায় অভিযুক্ত ওই ব্যক্তিকেও গ্রেপ্তার করে রবিবার দুপুরের পর বগুড়ায় আদালতে মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। পাশাপাশি ধর্ষণের শিকার ওই নারীর ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।

দৈনিক বগুড়া
দৈনিক বগুড়া