বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ৫ বৈশাখ ১৪৩১

ডাইনোসরের চেয়েও পুরনো এই প্রাণী, যার ১ লিটার রক্তের দাম ১১ লক্ষ

ডাইনোসরের চেয়েও পুরনো এই প্রাণী, যার ১ লিটার রক্তের দাম ১১ লক্ষ

সংগৃহীত

পৃথিবীতে না জানি কত ধরনের প্রাণী রয়েছে। এমন একটা সময় ছিল যখন বিশালাকার ডাইনোসরের মত প্রাণীও পৃথিবীতে বসবাস করত। এমন অনেক জীব আছে যাদের উপর আমরা কোন না কোন ভাবে নির্ভরশীল। এরকমই একটি প্রাণী হল নীল রক্তযুক্ত কাঁকড়া (হর্সশু কাঁকড়া)। তবে এটির প্রজাতিগত দিক দিয়ে মাকড়সার সঙ্গে অনেক মিল রয়েছে।

এরা ডাইনোসরের চেয়েও বেশি পুরাতন। কমপক্ষে তারা ৪৫০ মিলিয়ন বছর ধরে এই গ্রহে বসবাস করছে। প্রতিবছর গ্রীষ্মকালে আমেরিকার মেক্সিকো উপসাগর থেকে আটলান্টিক মহাসাগরের উপকূলবর্তী এলাকায় ঝাঁক বেঁধে অবস্থান করে এই কাঁকড়ার দল। হর্সশু কাঁকড়া এখনো পর্যন্ত লক্ষ লক্ষ মানুষের প্রাণ বাঁচিয়েছে।

বিজ্ঞানীরা ১৯৭০ সাল থেকে চিকিৎসায় ব্যবহৃত সরঞ্জাম এবং ভ্যাকসিনে ব্যাকটেরিয়ার উপস্থিত পরীক্ষায় করতে এই প্রাণীর রক্ত ব্যবহার করছে। এই রক্তের অসাধারণ ক্ষমতা বলে যেকোনো ধরনের ব্যাকটেরিয়া এবং বিষাক্ত পদার্থ থেকে নিজেদের রক্ষা করতে পারে। তাই চিকিৎসা বিজ্ঞানে এদের গুরুত্ব অপরিসীম।

বায়োমেডিক্যাল ব্যবহারের জন্য প্রতিবছর ৫০ মিলিয়ন হর্সশু কাঁকড়া ধরা হয়। হর্সশু কাঁকড়ার এক লিটার রক্তের দাম ১১ লক্ষ টাকা। এর রক্ত নীল রঙের। আসলে এর রক্তে তামা থাকে, যে কারণে রক্তের রং নীল। এছাড়াও একটি বিশেষ রাসায়নিক পদার্থ রয়েছে, যা অত্যন্ত অপরিহার্য।

এই কাঁকড়ার হৃদপিন্ডের কাছে সামান্য ছিদ্র করে ৩০% রক্ত বের করা হয়। এই প্রক্রিয়ার পর কাঁকড়াগুলোকে তাদের জায়গায় ছেড়ে দেওয়া হয়। কিন্তু এই প্রক্রিয়ার কারণে ৩০% কাঁকড়া মারাও যায়, ফলে স্ত্রী কাঁকড়ারা প্রজননের সমস্যার মুখোমুখি হয়। বর্তমানে বিশ্বে চার প্রজাতির হর্সশু কাঁকড়া অবশিষ্ট রয়েছে।

সূত্র: zoombangla

সর্বশেষ:

শিরোনাম:

ইন্টার্ন চিকিৎসকদের ভাতা বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন
ট্রেনের টিকিট কালোবাজারি চিরতরে বন্ধ হবে: রেলমন্ত্রী
ঈদের ছুটিতে বগুড়ায় যমুনার পাড়ে বিনোদনপ্রেমীদের ঢল
১৪ কিলোমিটার আলপনা বিশ্বরেকর্ডের আশায়
বান্দরবানে পর্যটক ভ্রমণে দেয়া নির্দেশনা চারটি স্থগিত
তাপপ্রবাহ বাড়বে, পহেলা বৈশাখে তাপমাত্রা উঠতে পারে ৪০ ডিগ্রিতে
নেইমারের বাবার দেনা পরিশোধ করলেন আলভেজ
বো*মের মতো সিলিন্ডার বি*স্ফোরণ, করণীয় কী
আয়ারল্যান্ডের সর্বকনিষ্ঠ প্রধানমন্ত্রীকে শেখ হাসিনার অভিনন্দন
স্মার্টফোন থেকে ছবি মুছে গেলে উদ্ধার করবেন যেভাবে
বৈসাবি উৎসবের আমেজে ভাসছে ৩ পার্বত্য জেলা
জুমার দিনে যেসব কাজ ভুলেও করতে নেই