শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১

"‘সুড়ঙ্গ’ সিনেমা পাইরেসি: অভিযুক্তদের হতে পারে চার বছরের কারাদণ্ড

"‘সুড়ঙ্গ’ সিনেমা পাইরেসি: অভিযুক্তদের হতে পারে চার বছরের কারাদণ্ড

সংগৃহীত

গত বছর কোরবানির ঈদে মুক্তিপ্রাপ্ত আলফা আই স্টুডিওস প্রযোজিত, রায়হান রাফী পরিচালিত সিনেমা ‘সুড়ঙ্গ’ পাইরেসির কবলে পড়ে চতুর্থ সপ্তাহে। অভিযুক্ত ব্যক্তিরা ‘সুড়ঙ্গ’ সিনেমার দৃশ্য ধারণ করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেন। তবে পাইরেসির কবলে পড়লেও গত বছরের ব্লক বাস্টার সিনেমা ছিল এটি। সিনেমাটি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তির পর ব্যাপক সাড়া ফেলে দর্শকদের মধ্যে।

এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, ২০২৩ সালের ২৯ জুলাই বনানী থানায় মামলা করে সিনেমাটির প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান। আফরান নিশো ও তমা মির্জা অভিনীত এ সিনেমার পাইরেসির ঘটনায় প্রযোজক শাহরিয়ার শাকিলের করা মামলায় ইতিমধ্যে চার্জ গঠন হয়েছে। বিচারকার্য শেষে অপরাধ প্রমাণ সাপেক্ষে অপরাধীদের চার বছরের কারাদণ্ডের বিধান রয়েছে আইনে।

পাইরেসির ঘটনায় বিচার চেয়ে আইনের দ্বারস্থ হন সিনেমাটির প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান আলফা আই স্টুডিওস লিমিটেডের কর্ণধার শাহরিয়ার শাকিল। প্রযোজকের করা মামলায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী গ্রেফতার করে দুই আসামি। একই বছর ৩০ জুলাই ঢাকা চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে পুলিশ আসামিদের হাজির করলে তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন বিজ্ঞ আদালত।

কপিরাইট আইন ২০০০ (সংশোধিত ০৫) অনুযায়ী ৮২/৮৪ ধারা অনুযায়ী অনুমতি ছাড়া চলচ্চিত্র ভিডিও ধারণ করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রচার করা অপরাধ। এই আইন ভঙ্গ করলে সর্বোচ্চ শাস্তি পাঁচ লাখ টাকা জরিমানা এবং চার বছরের কারাদণ্ডের বিধান রাখা হয়েছে। মামলাসূত্রে জানা যায়, গত ৬ মে ঢাকার বিচারিক আদালতে অভিযোগপত্র গৃহীত হয়।

বিগত বছরগুলোতে সাধারণত ঢাকার সিনেমা পাইরেসি হয়নি। নানা কৌশলে এই অবৈধ কাজ বন্ধ করতে সক্ষম হয়েছে ঢালিউড। কিন্তু সেই অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ফিরে রায়হান রাফীর ‘সুড়ঙ্গ’র মাধ্যমে। বাংলাদেশে সাড়া ফেলা সিনেমাটি নিয়ে যখন পশ্চিমবঙ্গেও আলোচনা শুরু হয়, তখন কোনো একটি পক্ষ ছবিটির কপি রেকর্ড করে ছেড়ে দিয়েছে অনলাইনে।

‘সুড়ঙ্গ’ সিনেমার মাধ্যমে বড় পর্দায় অভিষেক হয়েছে আফরান নিশোর। তার সঙ্গে আছেন তমা মির্জা। আরো অভিনয় করেছেন মোস্তফা মনোয়ার, শহীদুজ্জামান সেলিম, মনির আহমেদ শাকিল, অশোক ব্যাপারীসহ আরো অনেকে। মুক্তির পর পশ্চিমবঙ্গ, যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়ায়ও ছবিটি প্রদর্শিত হয়। প্রদর্শিত সব দেশে সিনেমাটি দর্শকপ্রিয়তা লাভ করে।

সূত্র: ডেইলি বাংলাদেশ

সর্বশেষ: