শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১

দীর্ঘদিন প্যারাসিটামল খাওয়ার ঝুঁকি

দীর্ঘদিন প্যারাসিটামল খাওয়ার ঝুঁকি

সামান্য মাথা ব্যথা, জ্বর জ্বর ভাব হলেই প্যারাসিটামল খাওয়ার অভ্যাস রয়েছে অনেকের। তবে এদের মধ্যে যাদের উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা রয়েছে দীর্ঘদিন প্যারাসিটামল খাওয়া তাদের জন্য ঝুঁকির কারণ হতে পারে বলে উঠে এসেছে একটি গবেষণায়।  

সার্কুলেশন জার্নালে প্রকাশিত একটি গবেষণার তথ্য বলছে, প্যারাসিটামলের কারণে তৈরি হওয়া উচ্চ রক্তচাপ হার্ট অ্যাটাক ও স্ট্রোকের অন্যতম প্রধান কারণ।১১০ জন স্বেচ্ছাসেবীর ওপর চালানো একটি ট্রায়ালে এ তথ্য উঠে এসেছে। এই স্বেচ্ছা সেবীদের টানা দুই সপ্তাহ ধরে প্রতিদিন ৪টি করে প্যারাসিটামল (১ গ্রাম) সেবন করতে দেওয়া হয়।

এই ট্রায়ালে দেখা যায়- কিছু শ্বেতাঙ্গ স্কটিশের রক্তচাপে ছোট কিন্তু তাৎপর্যপূর্ণ পরিবর্তন হয়। এ ট্রায়াল থেকে প্যারাসিটা মলের কারণে উচ্চ রক্তচাপ তৈরি হওয়ার কথা বলা হলেও এ বিষয়ে এখনই কোনো সিদ্ধান্তে আসতে নারাজ অনেক গবেষক। লন্ডনের সেইন্ট জর্জেস ইউনিভার্সিটির ফার্মাকোলজি ও থেরাপিউটিকসের শিক্ষক ড. দিপেন্দর গিল বলেন, প্যারাসিটামল ব্যবহারের ফলে রক্তচাপ বাড়ার সমস্যা দীর্ঘ দিন টিকে থাকে কি না, তা পরিষ্কার নয়।

এছাড়া প্যারাসিটা মলের জন্য বৃদ্ধি পাওয়া রক্তচাপের কারণে হৃদরোগ তৈরি হতে পারে কি না, তাও নিশ্চিতভাবে জানা যায়নি। এ বিষয়ে আরও বেশি মানুষের ওপর গবেষণা চালানো দরকার বলেও মরে করেন অন্য গবেষকরা। প্যারাসিটামল কীভাবে রক্তচাপ বাড়ায় গবেষকরা এখনই সে বিষয়ে পরিষ্কার কোনো তথ্য দিতে না পারলেও তারা চান যে রোগীরা দীর্ঘ দিন ধরে প্যারাসিটামল গ্রহণ করছেন তাদের স্বাস্থ্য ঝুঁকির বিষয়গুলো চিকিৎসকরা ভাবুক। তবে মাথা ব্যথা ও জ্বরের জন্য প্যারাসিটামল গ্রহণ করা যেতে পারে বলেও মত দিয়েছেন তারা। 

দৈনিক বগুড়া

সর্বশেষ: