• মঙ্গলবার   ০৬ ডিসেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২২ ১৪২৯

  • || ১২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

শুধু বিস্কুট খেয়েই বেঁচে থাকেন তিনি!

দৈনিক বগুড়া

প্রকাশিত: ২২ নভেম্বর ২০২২  

ধরুন একদিন হঠাৎ আপনার পেট ব্যথা শুরু হলো। তাড়াহুড়ো করে ডাক্তারের কাছে গেলেন। ডাক্তার সব পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে বললেন, আপনার পাকস্থলীতে বিচিত্র এক রোগ হয়েছে। এখন থেকে শুধু ডাইজেস্টিভ বিস্কুট খেয়ে বেঁচে থাকতে হবে!

অবাক লাগছে, তাই না? অবাক লাগার মতোই বিষয়। কিন্তু ব্রিটিশ তরুণি টালিয়া সিনট (২৫) সত্যি সত্যিই এমন এক রোগে ভুগছেন, যার জন্য তাকে শুধু ডাইজেস্টিভ বিস্কুট খেয়েই ক্ষুধা মেটাতে হচ্ছে।

জানা গেছে, চার বছর ধরে গ্যাস্ট্রোপেরেসিস নামে পাকস্থলীর বিরল এক রোগে ভুগছেন টালিয়া। এটি এমন একটি রোগ, যার কারণে খাবার হজম হতে অনেক সময় লাগে। কিছু খেলেই বমি বমি ভাব কিংবা বমি হয়ে যায়।

jagonews24

এমন অবস্থায় পাচনযোগ্য খাবারই একমাত্র অবলম্বন। টালিয়া তাই গত চার বছর ধরে পাচনযোগ্য অর্থাৎ ডাইজেস্টিভ বিস্কুট খেয়ে যাচ্ছেন।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে টালিয়া বলেন বলেন, এমন রোগ নিয়ে বেঁচে থাকাটা খুব কঠিন। ডাইজেস্টিভ বিস্কুট ছাড়া অর্থাৎ পাচন অযোগ্য কোনো খাবার খেলে বা পান করলেই প্রচণ্ড পেট ব্যথা শুরু হয় ও বমি হয়ে যায়।

তিনি জানান, ২০১৮ সালে প্রথম অদ্ভুত এ রোগের লক্ষণ দেখা দেয়। লক্ষণগুলো এতটাই বিচিত্র ও বিরল ছিল যে, শুরুতে চিকিৎসকেরাও বুঝতে পারছিলেন না যে, এটা আসলে কী রোগ।

টালিয়া বলেন, এ বছরের জানুয়ারিতে তিনি একটি নাম না জানা ভাইরাসে আক্রান্ত হন। এতে তার হজম প্রক্রিয়া একেবারে দুর্বল হয়ে পড়ে। একপর্যায়ে সমস্যা চরম পর্যায়ে চলে গেলে বাবা পিটার সিনেট টালিয়াকে লন্ডনের হাসপাতালে নিয়ে যান।

হাসপাতালটির এক বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক জানান, টালিয়ার গ্যাস্ট্রোপেরেসিস হয়েছে। এ রোগকে একবারে সারিয়ে তোলা যায় না। তবে চিকিৎসার মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়। চিকিৎসা না করানো হলে টালিয়াকে পাচনযোগ্য বিস্কুট খেয়েই বেঁচে থাকতে হবে।

পিটার সিনেট বলেন, টালিয়ার চিকিৎসা খরচ বাবদ প্রায় ৮০ হাজার পাউন্ড লাগবে। চিকিৎসকেরা ওর পেটে গ্যাস্ট্রিক পেসমেকার স্থাপন করবেন। এটি টালিয়ার পেটের মাংসপেশিতে স্পন্দন তৈরি করে খাবার হজম করতে সাহায্য করবে।

দৈনিক বগুড়া
দৈনিক বগুড়া