• শনিবার   ১৬ অক্টোবর ২০২১ ||

  • আশ্বিন ৩০ ১৪২৮

  • || ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

র‍্যাব ও বিএসটিআই’র যৌথ অভিযানে বিপুল পরিমাণ অবৈধ পণ্য জব্দ

দৈনিক বগুড়া

প্রকাশিত: ১২ অক্টোবর ২০২১  

বিএসটিআই’র গুণগত মানসনদ গ্রহণ না করে অবৈধভাবে ‘মশার কয়েল (ব্রান্ড: নিমপাতা ও লিনজা)’ উৎপাদন ও বিক্রয়-বিতরণ এবং মোড়কে বিএসটিআই’র মানচিহ্ন ব্যবহার করায় মেসার্স এসএমআর কনজ্যুমার প্রোডাক্টসকে অর্থদণ্ড প্রদান করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। সোমবার সকালে  শহরের ফুলবাড়ি এলাকায় র‌্যাব ও বিএসটিআই এর যৌথ অভিযানে এ জরিমানা করা হয়। বগুড়া জেলা প্রশাসনের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট রূপম দাস এই রায় ঘোষণা করেন। অভিযানে নেতৃত্ব দেন র‌্যাব-১২ এর কোম্পানী কমান্ডার স্কোয়াড্রন লিডার মোঃ সোহরাব হোসেন এবং বিএসটিআই বগুড়ার পরিদর্শনকারী কর্মকর্তা (সিএম উইং) প্রকৌশলী জুনায়েদ আহমেদ। এসময় পরিবেশ অধিদপ্তর, রাজশাহী বিভাগীয় কার্যালয়, বগুড়া এর সহকারী পরিচালক নূর কুতুবে আলম সিদ্দিক ও মাহথীর বিন মোহাম্মদ এবং র‌্যাব-১২ এর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।  

প্রকৌশলী জুনায়েদ আহমেদ জানান,  বিএসটিআই’র গুণগত মানসনদ গ্রহণ না করে অবৈধভাবে এবং দেশী-বিদেশী বিভিন্ন প্রকার নামীদামী ব্রান্ডের ‘সিনথেটিক ডিটারজেন্ট পাউডার’ নকল করে উৎপাদন ও বিক্রয়-বিতরণ এবং মোড়কে বিএসটিআই’র মানচিহ্ন ব্যবহার করায় নাটাইপাড়া এলাকার মেসার্স হাসনাত ব্রাদার্স এর বিরুদ্ধে ‘বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস এন্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশন আইন-২০১৮’ এর ২১ ও ১৫(১) ধারা মোতাবেক নিয়মিত মামলা দায়ের এবং বিপুল পরিমাণ নকল ডিটারজেন্ট পাউডার (ব্রান্ড: রিম, ঘুড়ি, সুপার এক্সেল, লাস্ট ওয়াশ প্রভৃতি) জব্দ করা হয়।

তিনি আরও জানান, গোদারপাড়া এলাকার  মেসার্স এসএস পলিমার বৈধভাবে বিএসটিআই’র বিএসটিআই’র মানচিহ্ন ব্যবহার করায় লেবেলসমূহ জব্দ করা হয় এবং পরিবেশ অধিদপ্তর, রাজশাহী বিভাগীয় কার্যালয়, বগুড়া কর্তৃক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়।

দৈনিক বগুড়া
দৈনিক বগুড়া