রোববার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০

আকার বাড়ছে মন্ত্রিসভার

মার্চেই মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী পেতে পারে ৬ মন্ত্রণালয়

মার্চেই মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী পেতে পারে ৬ মন্ত্রণালয়

সংগৃহীত

শিগগিরই বাড়তে পারে বর্তমান মন্ত্রিসভার আকার। ধারণা করা হচ্ছে আরো ৬টি মন্ত্রণালয়ে মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রী নিয়োগ দেয়া হতে পারে। এর মধ্যে দুটিতে পূর্ণমন্ত্রী আর চারটিতে প্রতিমন্ত্রী দেয়া হতে পারে। মন্ত্রিসভার নতুন সদস্যদের মধ্যে সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্যরা অগ্রাধিকার পাবেন। সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্যরা গতকাল বুধবার শপথ নিয়েছেন। সংশ্লিষ্ট সূত্র এসব তথ্য জানিয়েছে।

সূত্র জানায়, ৬টি মন্ত্রণালয়ের অন্তত ৪টিতে সংরক্ষিত নারী আসন থেকে মন্ত্রিসভায় ঠাঁই পেতে পারেন। আর দুটি মন্ত্রণালয়ের একটিতে নির্বাচিত সংসদ সদস্য ও একটিতে টেকনোক্রেটমন্ত্রী থাকতে পারেন। আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সম্প্রতি মন্ত্রিসভার আকার বাড়ার বিষয়ে ইঙ্গিত দেন। মন্ত্রিপরিষদও এ বিষয়ে প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছেন। এখন অপেক্ষা প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্তের।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় গত ৭ জানুয়ারি। নির্বাচনে আওয়ামী লীগ দলীয় প্রতীকে এককভাবে ২২৩টি আসনে জয়লাভ করে। ৬২টি আসনে বিজয়ী স্বতন্ত্র প্রার্থীদের মধ্যে ৫৮ জনই আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা। ১০ জানুয়ারি শপথ নেন সংসদ সদস্যরা। ১১ জানুয়ারি গঠন হয় মন্ত্রিসভা। ওইদিন সন্ধ্যায় গণভবনে শপথ নেন প্রধানমন্ত্রীসহ নতুন মন্ত্রিসভার ৩৭ জন সদস্য। এর মধ্যে ২৫ জন পূর্ণমন্ত্রী আর ১১ জন প্রতিমন্ত্রী।

বিগত একাদশ জাতীয় সংসদে মন্ত্রিসভার সদস্য ছিল ৪৯ জন। প্রধানমন্ত্রী ছাড়াও ওই মন্ত্রিসভায় পূর্ণমন্ত্রী ছিলেন ২৬ জন, প্রতিমন্ত্রী ছিলেন ২০ জন আর উপমন্ত্রী ছিলেন ৩ জন। এবার মন্ত্রিসভায় পূর্ণমন্ত্রীর আকার ঠিক থাকলেও কমেছে প্রতিমন্ত্রীর সংখ্যা। উপমন্ত্রী হিসেবে কাউকে নিয়োগ দেয়া হয়নি। নতুন মন্ত্রিসভায় উপমন্ত্রী না থাকার সম্ভাবনাই বেশি। মন্ত্রিসভার আকারও আগের মতো হবে না।

আওয়ামী লীগের বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, নতুন করে মন্ত্রিসভার যে আকার বাড়ছে তাতে দুজন পূর্ণমন্ত্রী আর ৪ জন প্রতিমন্ত্রী হতে পারেন। বর্তমানে সংস্কৃতি আর শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ে কোনো মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী নেই। এই দুটি মন্ত্রণালয়ে দুজন পূর্ণমন্ত্রী নিয়োগ দেয়া হতে পারে। এছাড়া অর্থ, পররাষ্ট্র, পরিকল্পনা ও স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে একজন করে প্রতিমন্ত্রী নিয়োগ দেয়া হতে পারে। ১ জন নির্বাচিত সংসদ সদস্য, ৪ জন সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য এবং টেকনোক্রেট কোটায় সাবেক একজন আমলাকে দেখা যেতে পারে।

সবকিছু ঠিক থাকলে মার্চের প্রথম সপ্তাহেই নতুন মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীরা শপথ নিতে পারেন বলে গুঞ্জন রয়েছে। মন্ত্রিসভার পরিধি বাড়ার বিষয়ে গত ১২ ফেব্রুয়ারি সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, এটা প্রধানমন্ত্রী বলতে পারেন। তবে এখানে সময় মতো কিছু জায়গায় যেমন- শ্রম মন্ত্রণালয় ও সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় এগুলোতে কোনো না কোনো মন্ত্রী আসবেন। সংরক্ষিত মহিলা আসনগুলো আসার পরে, মন্ত্রী আসতে পারে। এরপরে চিন্তাভাবনা। তবে এটা একমাত্র প্রধানমন্ত্রীর এখতিয়ার, তিনি সেটা করবেন।

আর গতকাল মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার আকার বাড়ার বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মাহবুব হোসেন বলেন, আমার কাছে এখন পর্যন্ত এরকম কোনো সংবাদ নেই। আপনার কাছে এরকম কোনো নির্দেশনা আছে কিনা জবাবে তিনি বলেন, সেরকম কিছু হলে অবশ্যই আপনারা জানবেন এবং নির্ধারিত সময়েই আপনারা জানবেন।

সূত্র: ভোরের কাগজ

সর্বশেষ:

শিরোনাম:

ইন্টার্ন চিকিৎসকদের ভাতা বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন
ট্রেনের টিকিট কালোবাজারি চিরতরে বন্ধ হবে: রেলমন্ত্রী
ঈদের ছুটিতে বগুড়ায় যমুনার পাড়ে বিনোদনপ্রেমীদের ঢল
১৪ কিলোমিটার আলপনা বিশ্বরেকর্ডের আশায়
বান্দরবানে পর্যটক ভ্রমণে দেয়া নির্দেশনা চারটি স্থগিত
তাপপ্রবাহ বাড়বে, পহেলা বৈশাখে তাপমাত্রা উঠতে পারে ৪০ ডিগ্রিতে
নেইমারের বাবার দেনা পরিশোধ করলেন আলভেজ
বো*মের মতো সিলিন্ডার বি*স্ফোরণ, করণীয় কী
আয়ারল্যান্ডের সর্বকনিষ্ঠ প্রধানমন্ত্রীকে শেখ হাসিনার অভিনন্দন
স্মার্টফোন থেকে ছবি মুছে গেলে উদ্ধার করবেন যেভাবে
বৈসাবি উৎসবের আমেজে ভাসছে ৩ পার্বত্য জেলা
জুমার দিনে যেসব কাজ ভুলেও করতে নেই