মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

র‌্যাব ডিজি

নববর্ষে নাশকতা মোকাবিলায় প্রস্তুত স্পেশাল কমান্ডো টিম

নববর্ষে নাশকতা মোকাবিলায় প্রস্তুত স্পেশাল কমান্ডো টিম

সংগৃহীত

বাংলা নববর্ষের দিন দেশে জঙ্গি হামলার হওয়ার আশঙ্কা নেই জানিয়ে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) মহাপরিচালক (ডিজি) এম খুরশীদ হোসেন বলেন, এবার যেকোনো ধরনের নাশকতা ও হামলা মোকাবিলায় র‌্যাবের স্পেশাল কমান্ডো টিম সার্বক্ষণিক প্রস্তুত রয়েছে। শনিবার (১৩ এপ্রিল) রাজধানীর রমনা বটমূলের সার্বিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা পরিদর্শন শেষে র‌্যাবের ডিজি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘পহেলা বৈশাখকে কেন্দ্র করে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে প্রত্যেক বছরের মতো এবছরও র‌্যাব কর্তৃক বিশেষ নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। র‌্যাব সারাদেশে গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধি করেছে। নববর্ষের অনুষ্ঠান শেষ না হওয়া পর্যন্ত নিরাপত্তা জোরদার করতে সারাদেশে র‌্যাবের ব্যাটালিয়নসমূহ নিজ নিজ দায়িত্বপূর্ণ এলাকায় পর্যাপ্ত সদস্য মোতায়েন রেখেছে।’

র‌্যাব মহাপরিচালক আরও বলেন, ‘বাংলা নববর্ষ উদযাপন উপলক্ষে টিএসসি, শাহবাগ, সোহরাওয়ার্দী উদ্যান, রমনা বটমূল, হাতিরঝিল, পূর্বাচল ৩০০ ফিটসহ যেসব স্থানে জনসমাবেশ হবে বা উৎসবমুখর মানুষ যাবে সেসব স্থানে নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য পর‌্যাপ্ত সংখ্যক টহল ও অবজারভেশন পোস্টসহ বিভিন্ন রকম পেট্রল ও সাদা পোশাকে আমাদের সদস্যদের নিয়োজিত রেখেছি। এছাড়াও রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলোতে র‌্যাবের বোম ডিসপোজাল ইউনিট, ডগ স্কোয়াডসহ সুইপিং সম্পন্ন করা হবে। বিভিন্ন অনুষ্ঠানস্থল ও গুরুত্বপূর্ণ স্থানে আমাদের গোয়েন্দা টিম সার্বক্ষণিক নজরদারি অব্যাহত রেখেছে।

সারাদেশে নববর্ষ উদযাপনে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘যে কোনো পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য আমাদের স্ট্রাকিং রিজার্ভ ফোর্স সবসময় তৈরি থাকবে। যেকোনো ধরনের নাশকতা ও হামলা মোকাবিলায় র‌্যাবের স্পেশাল কমান্ডো টিমকেও সার্বক্ষণিক প্রস্তুত রেখেছি। এছাড়া নাশকতামূলক যে কোনো পরিস্থিতি মোকাবিলায় পর্যাপ্ত সংখ্যক টহল মোতায়েন ও সাদা পোশাকে গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধির মাধ্যমে নাশকতাসহ যে কোনো ধরনের উদ্ভূত পরিস্থিতি কঠোরভাবে প্রতিহত করা হবে।’

তিনি বলেন, ‘গোয়েন্দা তথ্য, সাইবার মনিটরিংসহ অন্যান্য তথ্য বিশ্লেষণপূর্বক বাংলা নববর্ষকে কেন্দ্র করে কোনো ধরনের জঙ্গি হামলার ব্যাপারে সুনির্দিষ্ট তথ্য পাওয়া যায়নি। তবু আমরা আত্মতৃপ্তিতে ভুগছি না। গোয়েন্দা ও সাইবার মনিটরিং বৃদ্ধির মাধ্যমে জঙ্গিদের যে কোনো নাশকতার পরিকল্পনা নষ্ট করে দিতে র‌্যাব সার্বক্ষণিক প্রস্তুত রয়েছে।’মহাপরিচালক আরও বলেন, ‘নববর্ষকে কেন্দ্র করে ভার্চুয়াল জগতে কোনো ধরনের গুজব, মিথ্যা তথ্য ছড়িয়ে কেউ যাতে অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে না পারে, সেজন্য র‌্যাবের সাইবার মনিটরিং টিম অনলাইনে সার্বক্ষণিক নজরদারি অব্যাহত রেখেছে। অনুষ্ঠানের স্থলে ইভটিজিং ও নারীদের উত্ত্যক্ত করা রোধে মোবাইল কোর্টসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। কেউ হেনস্তার শিকার হলে অবশ্যই জানাবেন। আমরা কঠোর হস্তে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবো।’অন্যান্য বছরের মতো এবারও উৎসাহ ও উদ্দীপনার মধ্যে দেশব্যাপী বাংলা নববর্ষ উদযাপিত হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন খুরশীদ হোসেন।

সূত্র: jagonews24.com

সর্বশেষ: