মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

হেচি শাক রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়

হেচি শাক রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়

সংগৃহীত

হেচি শাক বা মালঞ্চ শাক একটি সপুষ্পক উদ্ভিদ। এর বৈজ্ঞানিক নাম Polvcarpon prostratum)। এই শাকের পাতা দেখতে চিড়ার মতো হওয়ায় স্থানীয়রা একে চিড়া শাক বলা হয়ে থাকে। বাংলাদেশের বিভিন্ন সমতল এলাকায় জন্মে। নিচু জমিতে, ভেজা ও স্যাঁতস্যাঁতে জায়গায় বেশি জন্মে। বিভিন্ন এলাকায় এই শাককে বিভিন্ন নামে ডাকা হয়। গাছটি মাটিতে ঘনভাবে বিছিয়ে থাকে এবং লম্বায় প্রায় চার/পাঁচ হাত হয়। বর্ষাকালে কিছু অংশ মাটিতে ও কিছু অংশ পানিতে ভাসতে থাকে। পাতা প্রস্ত পাঁচ/ছয় আঙুল হলেই এই শাক খাওয়ার উপযোগী হয়।

শাক হিসেবে গাছের আগা সংগ্রহ করার সঙ্গে সঙ্গে ছোট ছোট উপশাখা বের হয়ে ছড়িয়ে পড়ে। গাছটির ফুলের রং সাদা ও ছোট আকারের ফুলগুলো কাণ্ডের সাথে লেগে থাকে।গাছটির কাণ্ডের শিকড় থেকেই নতুন গাছের জন্ম হয়। বর্ষাকালে গাছগুলো বড় হয়ে থাকে এবং তখন পাতাগুলোও বড় হয়। শাকের মূল কাণ্ড থেকে ছোট ছোট ডাল বের হয়, যা শাক হিসেবে ব্যবহৃত হয়। এর পাতার রং সবুজ তবে কাণ্ড লালচে খয়েরি রঙের হয়। অগ্রহায়ণ মাসে এই গাছে ছোট ছোট হলুদ রঙের ফুল ধরতে দেখা যায়। পাতা গুলো মোটা এবং রসালো। ফুলগুলো কাণ্ডের সঙ্গে লেগে থাকে। ফিল থেকে ছোট ছোট লাল রঙের বীজ হয়। হেচি শাক বাংলাদেশের সর্বত্র জন্মায়। সারা বছরই এই শাক কমবেশি পাওয়া যায়। তবে, জ্যৈষ্ঠ থেকে আষাঢ় মাসে এই শাক বেশি পাওয়া যায়। হেচি শাকের ভেষজ গুণাগুণ রয়েছে।

উপকারিতা:

১. হেচি শাকের রস খেলে স্নায়ুর সমস্যা ভালো হয়।
২.  হেচি শাক রান্না করে খেলে শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে এবং টেনশন কমাতে সাহায্য করে।
৩. হেচি শাক দিয়ে খিচুড়ি বানিয়ে খাওয়ালে শিশুর পুষ্টির চাহিদা পূরণ হয়।
৪. হেচি শাক ভাতের সাথে খেলে পেটের সমস্যা ভালো হয়।
৫. হেচি শাকের রস করে গরম করে খেলে হাঁচি-কাশি-সর্দি ছাড়াও অ্যালার্জি কমাতে সাহায্য করে।

সূত্র: ডেইলি বাংলাদেশ

সর্বশেষ: