শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

টেলিটক ও বাংলালিংকের একই নেটওয়ার্ক ব্যবহার কাল থেকে

টেলিটক ও বাংলালিংকের একই নেটওয়ার্ক ব্যবহার কাল থেকে

সংগৃহীত

দেশে প্রথমবারের মতো ন্যাশনাল রোমিং ফিল্ড ট্রায়াল চালু করছে মুঠোফোন অপারেটর প্রতিষ্ঠান টেলিটক ও বাংলালিংক। এর আওতায় উভয় অপারেটর তাদের অপেক্ষাকৃত কম নেটওয়ার্ক কভারেজের এলাকায় নির্বিঘ্নে একে অপরের নেটওয়ার্ক ব্যবহার করার পরীক্ষামূলক কার্যক্রম চালাবে।

শুরুতে সীমিত পরিসরে এই ‘ন্যাশনাল রোমিং’ সেবা চালু হবে। টেলিটকের ২ হাজার গ্রাহক এই সেবা নিতে পারছেন। এরপর ধীরে ধীরে এটি বাড়িয়ে পুরোদমে তা চালুর পরিকল্পনা রয়েছে।

মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিকভাবে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এর উদ্বোধন করবেন।

বিটিআরসি বলছে, ন্যাশনাল রোমিং আন্তর্জাতিক রোমিং সেবার মতোই একটি বিষয়। এতে একটি মোবাইল অপারেটরের গ্রাহকরা দেশের কোনো এলাকায় তাদের নেটওয়ার্ক না পেলে কিংবা নেটওয়ার্ক দুর্বল হলে আরেকটি মোবাইল অপারেটরের নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে সব রকম মোবাইল যোগাযোগ সেবা নেবেন। বাংলালিংক এই সেবার জন্য টেলিটককে এখনই কোনো চার্জ করছে না।

এই উদ্যোগ চালুর আগে দুই অপাারেটর নিজেদের মধ্যে ভয়েস কল, এসএমএস, ইউএসএসডি সেবার ইনকামিং-আউটগোয়িং পরীক্ষা করেছে। সেখানে এটির সফলতার হারই বেশি দেখা গেছে।

হোম নেটওয়ার্ক (গ্রাহকের সিম যে অপারেটরের) না থাকলে ডমিস্টিক বা ন্যাশনাল রোমিংয়ের মাধ্যমে ওই নেটওয়ার্কের বাইরে ভিজিটিং নেটওয়ার্ক (গ্রাহক বিকল্প হিসেবে যে নেটওয়ার্কে সংযুক্ত হবে) ব্যবহার করে সংযুক্ত থাকবে গ্রাহক। এ জন্য ভিজিটিং নেটওয়ার্কের ফ্রিকোয়েন্সি, অ্যান্টেনা, র‌্যান, কোর সুইচিং নোডসসহ নেটওয়ার্কের মূল অবকাঠামো ব্যবহার করতে হবে । এর মধ্য দিয়ে গ্রাহক নিজের সিমে নেটওয়ার্ক না থাকার পর আরেকটি অপারেটরের নেটওয়ার্কে সংযুক্ত হয়ে কথা বা মোবাইল সেবা নিতে পারবেন।

সূত্র: ডেইলি বাংলাদেশ

সর্বশেষ: