• মঙ্গলবার   ১৫ জুন ২০২১ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৩১ ১৪২৮

  • || ০৫ জ্বিলকদ ১৪৪২

৯৯৯ এ ফোন, দুপচাঁচিয়ায় উদ্ধার হলো দুই যুবক

দৈনিক বগুড়া

প্রকাশিত: ২০ মে ২০২১  

বগুড়ায় সিএনজিচালক ও যাত্রী বেশি অপরাধেিদর কবলে পড়ে ৯৯৯এ ফোনে দুই যুবককে উদ্ধার করলো দুপচাঁচিয়া থানা পুলিশ। উদ্ধার হওয়া যুবকরা হলেন নাটোর জেলার সিংড়া উপজেলার ফজলুর রহমানের ছেলে আসলাম হোসেন (২৪) ও একই উপজেলার বিয়াস পাড়ার সিরাজ উদ্দিনের ছেলে মোস্তফা হোসেন (২৫)। 

থানা সূত্রে জানা যায়, বগুড়ার কাহালু উপজেলার মালঞ্চা ও চৌমুহনী এলাকায় বোরো ধান কাটতে আসেন নাটোরের সিংড়ার ফজলুর রহমান, সিরাজ উদ্দিনসহ অন্যান্যরা। গত মঙ্গলবার ফজলুর রহমানের ছেলে আসলাম হোসেন মোস্তফাকে সঙ্গে নিয়ে তার বাবার সঙ্গে দেখা করতে বগুড়া চার মাথায় প্রায় রাত দেড়টার দিকে আসেন। এরপর অচেনা-অজানা জায়গা হওয়ায় তারা মালঞ্চা যাবার জন্য সিএনজি ভাড়া করে তাতে উঠেন। সিএনজিচালক ও যাত্রী বেশি অপরাধীরা তাদের মালঞ্চা যাবার কথা বলে দুপচাঁচিয়া উপজেলার দিকে নিয়ে যায় এবং তাদের কাছে থাকা মোবাইল ফোন ও টাকা ছিনিয়ে নিয়ে আসলামের মোবাইল থেকে তার বাড়িতে ফোন করে মোটা অংকের টাকা দাবি করেন। এসময় তার বাড়ির লোকজন ৯৯৯-এ ফোন করে বিষয়টি অবগত করেন।

৯৯৯-এ ফোন পেয়ে দুপচাঁচিয়া থানার ওসি এর নেতৃত্বে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে পুলিশের বিশেষ টিম কয়েক ভাগে ভাগ হয়ে অভিযান চালিয়ে মঙ্গলবার রাত ৩টার দিকে দুপচাঁচিয়া উপজেলার শেষ সীমানার একটি খোলা মাঠ থেকে ওই দুই যুবককে উদ্ধার করে।

এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে অপরাধীরা ছিনিয়ে নেয়া টাকা ও মোবাইল ফোন তাদের কাছে ফেলে দিয়ে পালিয়ে যায়। পরে পুলিশ উদ্ধার হওয়া যুবকদ্বয়কে তাদের অভিভাবকের নিকট তুলে দেন। 

দুপচাঁচিয়া ওসি ইনচার্জ হাসান আলী জানান, ৯৯৯এ ফোন পেয়ে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে যুবকদের উদ্ধার করা হয়েছে। কোনো অভিযোগ না থাকায় যুবকদ্বয়কে তাদের অভিভাকের কাছে তুলে দেয়া হয়েছে।

দৈনিক বগুড়া
দৈনিক বগুড়া