মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

জ্বালানি খাতে ১৪০ কোটি ডলার বিনিয়োগ করছে সৌদি আরব

জ্বালানি খাতে ১৪০ কোটি ডলার বিনিয়োগ করছে সৌদি আরব

সংগৃহীত

বাংলাদেশের জ্বালানি খাতে ১৪০ কোটি মার্কিন ডলার বা ১৫ হাজার ৩৪৮ কোটি টাকা বিনিয়োগ করছে সৌদি আরব। বাংলাদেশের জ্বালানি অবকাঠামো উন্নয়নের লক্ষ্যে এরই মধ্যে দুই দেশের সরকারি পর্যায়ে এ সংক্রান্ত চুক্তিও স্বাক্ষর হয়েছে। 

সংবাদমাধ্যম তথ্যানুযায়ী, সৌদি আরবের বিনিয়োগে বাংলাদেশের জ্বালানি খাতের নিরাপত্তা নিশ্চিত হবে। একইসঙ্গে দক্ষিণ এশিয়ার দ্রুত বর্ধনশীল অর্থনীতির দেশ হিসেবে পরিচিতি পাওয়া বাংলাদেশের ডলারের রির্জাভের ওপর চাপ কমাবে।

সৌদির সরকারি আর্থিক প্রতিষ্ঠান ইসলামিক ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের (আইডিবি) বিশেষ প্রকল্প ইসলামিক ট্রেড ফিন্যান্স কর্পোরেশনের (আইটিএফসি) মাধ্যমে প্রদান করা হবে বিনিয়োগের অর্থ।

সম্প্রতি যে চুক্তিটি স্বাক্ষরিত হয়েছে, তাতে সৌদি সরকারের প্রতিনিধি হিসেবে আইটিএফসি এবং বাংলাদেশ সরকারের প্রতিনিধি হিসেবে দেশের জ্বালানি তেল আমদানি ও বিপণন বিষয়ক কর্তৃপক্ষ বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশনের (বিপিসি) কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

আইটিএফসি বলছে, বিনিয়োগের মূল লক্ষ্যই হলো বাংলাদেশের জ্বালানি অবকাঠামোর উন্নয়ন করা।

সংবাদমাধ্যম আরব নিউজ জানিয়েছে, সৌদি আরবের এই বিনিয়োগে বাংলাদেশের জ্বালানি খাতের নিরাপত্তা নিশ্চিত হবে। একইসঙ্গে দক্ষিণ এশিয়ার দ্রুত বর্ধনশীল অর্থনীতির দেশ হিসেবে পরিচিতি পাওয়া বাংলাদেশের ডলারের রির্জাভের ওপর চাপ কমাবে।

বাংলাদেশ কর্তৃপক্ষ বলছে, এই চুক্তির অধীনে আগামী জুলাই থেকে ২০২৫ সালের জুন পর্যন্ত বিনিয়োগের টাকা পাওয়া যাবে। এই অর্থায়নের বেশিরভাগ অর্থ ব্যয় করা হবে অপরিশোধিত তেল আমদানিতে। এছাড়াও অল্প পরিমাণে পরিশোধিত তেলও আমদানি করা হবে।

নিজেদের চাহিদার বেশিরভাগ জ্বালানি আমদানি করতে হয় বাংলাদেশকে। সেই দিক দিয়ে সৌদি আরবের এই বিনিয়োগ জ্বালানি সরবরাহ নিশ্চিত করতে সহায়তা করবে বলেই ধারণা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

প্রসঙ্গত, এই চুক্তি দুই দেশের মধ্যকার মিত্রতা ও দীর্ঘকালীন অংশীদারিত্বের একটি সাক্ষ্য। আশা করা হচ্ছে, দক্ষিণ এশিয়ার দ্রুত বর্ধনশীল অর্থনীতি নামে পরিচিত একটি দেশের জ্বালানি নিরাপত্তা নিশ্চিত হবে এই চুক্তির মধ্যে দিয়ে।

সূত্র: ডেইলি বাংলাদেশ

সর্বশেষ: